নিজে মার খেয়ে কর্মীকে বাঁচালেন ইশরাক, ভিডিও ভাইরাল!

ইমান২৪.কম: বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের প্রতিবাদে রাজধানীতে প্রতিবাদ সমাবেশের শেষের দিকে বিএনপির নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় পুলিশের ব্যাপক লাঠিচার্জে আহত হয়ে আটক এক রক্তাক্ত ছাত্রদল নেতাকে ছিনিয়ে নিয়েছেন ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন।

আজ শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সোয়া ১২টার দিকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন প্রধান অতিথির বক্তব্য দেওয়ার সময় এই ঘটনা ঘটে। এদিকে পুলিশের লাঠির মার খেয়েও নিজ দলের কর্মীকে বাঁচাতে এগিয়ে যান বিএনপি নেতা ও অবিভক্ত ঢাকার প্রয়াত মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে ইশরাক হোসেন।

ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সেই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা গেছে, পুলিশ লাঠিচার্জ শুরু করলে বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা প্রেসক্লাবের ভেতরের দিকে যেতে থাকনে। এ সময় নেতাকর্মীদের নিরাপত্তা দিতে এগিয়ে আসেন ইশরাক হোসেন।

তাদের কয়েকজনকে জড়িয়ে ধরে প্রেসক্লাবের ভেতরে নিয়ে যান তিনি। এ সময় পুলিশ বেদমভাবে ইশরাকসহ অন্য নেতাকর্মীর উপর লাঠিচার্জ করেন। ইশরাক প্রেসক্লাবের ভেতরে যাওয়ার পর বিএনপির একজন কর্মীকে রাস্তায় ধরে ফেলে পুলিশ। পরে তাকে উদ্ধার করতে আবারও দৌঁড়ে আসেন ইশরাক।

ঝাপটে ধরেন ওই কর্মীকে। এর পর ওই কর্মীকেও নিরাপদে প্রেসক্লাবে নিয়ে আসনে তিনি। এদিকে গণমাধ্যমে এমন ভিডিও প্রকাশিত হওয়ার সেটি মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়। ইশরাকের এমন সাহকিতায় অনেকেই তাকে প্রশংসায় ভাসাচ্ছেন। অনেকেই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন। এ সময় ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক আমিনুর রহমান আমিনসহ বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হন। এছাড়া বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করেছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি।

ফেসবুকে লাইক দিন