পশুর হাট বসাতে বাধা দেওয়ায় ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়ি ভাঙচুর

ইমান২৪.কম: নোয়াখালীর কবিরহাটে পশুর হাট বসাতে বাধা দেওয়ায় জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট দেবব্রত দাশের গাড়িতে গোবর নিক্ষেপ ও গাড়ি ভাঙচুর করে তাকে অবরুদ্ধ করে রাখার চেষ্টা করা হয়। খবর পেয়ে কবিরহাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সোমবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার ধানসিঁড়ি ইউনিয়নের নবগ্রামের চিরিঙ্গা বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, প্রতিবছরই কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে কবিরহাট উপজেলার চিরিঙ্গা বাজার পরিচালনা কমিটি এখানে পশুর হাট বসায়। এ বছর দেশের চলমান করোনার পরিস্থিতির কারণে জেলা প্রশাসন জেলার কোথাও এখন পর্যন্ত কোরবানির পশুর হাট বসানোর অনুমতি দেননি। কিন্তু চিরিঙ্গা বাজার পরিচালনা কমিটির যোগসাজশে জেলা প্রশাসনের কঠোর বিধি-নিষেধ অমান্য করে তারা সেখানে ঈদুল আজহা উপলক্ষে কোরবানির পশুর হাট বসায়।

বিষয়টি জেলা প্রশাসনের নজরে এলে খবর পেয়ে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দেবব্রত দাশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পশুর হাট দেখতে পেয়ে তিনি তা বন্ধ করার নির্দেশ দেন। এ সময় চিরিঙ্গা বাজার পরিচালনা কমিটির কর্মকর্তারা তার কথা না রেখে স্থানীয় কয়েকজন নেতৃবৃন্দের উসকানিতে উপস্থিত জনতা বিক্ষুদ্ধ হয়ে জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে এবং গাড়িতে গোবর নিক্ষেপ করে তাকে অবরুদ্ধ করে রাখে। পরে খবর পেয়ে কবিরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাসিনা আক্তার ও কবিরহাট থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে বাজার বন্ধ করে দেন।

এ বিষয়ে জানতে ধানসিঁড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও চিরিঙ্গা বাজার পরিচালনা কমিটির সভাপতি আবদুল মান্নানের ফোনে একাধিকবার কল করা হলে তার মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যাওয়ায় তার বক্তব্য জানা যায়নি।

কবিরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাসিনা আক্তার জানান, পশুর হাট বন্ধের নির্দেশনা আছে। খবর পেয়ে পুলিশ নিয়ে ম্যাজিস্ট্রেট উপস্থিত হবার পরও সেখানে তাঁর গাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটে। তবে গাড়িতে গোবর নিক্ষেপের বিষয়ে তিনি অবগত নন। এ ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে।

ফেসবুকে লাইক দিন