ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের তাণ্ডব: পানির তলায় শহর, ভাসছে বাড়ি-গাড়ি

ইমান২৪.কম: ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের তাণ্ডবে ভাসছে ভারতের দিঘা। ইয়াসের প্রভাবে হলদিয়ার হলদি নদীর পানি গ্রামে ঢুকতে শুরু করেছে। শুরু হয়েছে জলোচ্ছ্বাস। প্লাবিত হয়েছে দিঘা শহর।

সকাল নটা পনেরো নাগাদ ওড়িশার বালেশ্বর ও ধামড়ার মধ্যে উপকূলে আছড়ে পড়েছে ইয়াস। পানি ঢুকতে শুরু করেছে দিঘার মূল রাস্তায়। ভেসে গেছে রাস্তা ঘাট, পানিতে ভাসছে গাড়ি।

আতঙ্কে বাড়ি ছাড়ছেন সেখানকার অনেক বাসিন্দা। দীঘায় ওয়াচ টাওয়ার ছাপিয়ে গিয়েছে জলোচ্ছ্বাস। দিঘার বাজার এলাকা ৫ থেকে ৬ ফুট পানির নিচে চলে গিয়েছে। মঙ্গলবার রাত থেকেই দিঘায় বৃষ্টি শুরু হয়েছে। সমুদ্রে ঢেউয়ের উচ্চতাও বেড়ে চলছে।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বৃষ্টির তীব্রতাও বেড়েছে। এরই মধ্যে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে শহরের গুরুত্বপূর্ণ ৯টি ফ্লাইওভার। দিঘার উপকূল এলাকার বাসিন্দাদের অনেক আগেই সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় সেনা নামানো হয়েছে।

দিঘার সমুদ্রের এমন ভয়াল রূপ আগে কখনও দেখা যায়নি বলে জানাচ্ছেন স্থানীয়রা। প্রবল জলোচ্ছ্বাসে বোল্ডার টপকে রাস্তায় চলে আসছে ঢেউ। তীব্র গতিতে বইছে ঝোড়ো হাওয়া। সঙ্গে অবিরাম বৃষ্টি। সকাল সাড়ে ৭টা নাগাদ গার্ডওয়াল টপকে দিঘা শহরে জল ঢুকতে শুরু করে। কার্যত জলের তলায় আশপাশের দোকানগুলো ভেসে যায়।

ডুবে যায় রাস্তার উপর দাঁড় করানো মোটরবাইক, গাড়ি। মন্দারমণিতে বীভৎস প্রভাব দেখায় ঘূর্ণিঝড় ইয়াস। আশপাশের অধিকাংশ হোটেলগুলিতে জল ঢুকে যায়। রাস্তা টপকে গ্রামগুলোতেও জল ঢুকতে শুরু করে। প্রবল ঝড়ো হাওয়ায় উড়ে যায় বেশ কিছু বাড়ির চাল। ক্ষতিগ্রস্থ একাধিক দোকান-বাড়ি। ল্যান্ডফলের পরই সেনা নামে এলাকায়। দোকান মালিকদের জিনিসপত্র উদ্ধারে সাহায্য করতে দেখা যায় তাঁদের।

ফেসবুকে লাইক দিন