নিউজিল্যান্ডে হামলা হওয়া সেই মসজিদে আবারও বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা

ইমান২৪.কম: ২০১৯ সালে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরে দুইটি মসজিদে এক খ্রিস্টান সন্ত্রাসী ভয়াবহ হামলা চালিয়ে অর্ধশত মুসল্লিকে শহিদ করে। তন্মদ্ধে একটি মসজিদের নাম আল নূর।

সে সময় নিউজিল্যান্ডের ওই শহরেই অবস্থান করছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। এমনকি টাইগারদের কয়েকজন ছিলেন মসজিদের অদূরেই। তারা ওই সময় নামাজের উদ্দেশে মসজিদের দিকেই যাচ্ছিলেন। পরদিনই হ্যাগলি ওভালে শেষ টেস্ট খেলা প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড দলের ক্রিকেটাররা।

ম্যাচের আগের দিন অনুশীলন ও সংবাদ সম্মেলন শেষ করে টিম বাসে করে আল নূর মসজিদের উদ্দেশে রওনা দেন বাংলাদেশ দলের অধিকাংশ খেলোয়াড়রা।

বাসটি আল নূর মসজিদে পৌঁছানোর আগেই সেখানে ব্রেন্টন ট্যারান্ট নামের ওই সন্ত্রাসী শুরু করেছিলেন হত্যাযজ্ঞ। সৌভাগ্যক্রমে বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা একটু দেরি করে মসজিদে পৌঁছানোয় প্রাণে রক্ষা পান।

তবে ব্রেন্টন ট্যারান্ট নামের সেই খ্রিস্টান সন্ত্রাসীর হামলায় নিহত হন ৫১ জন মানুষ। যার মধ্যে ছিলেন নিউজিল্যান্ডে বসবাসরত পাঁচজন বাংলাদেশি। বিভীষিকাময় সেই ঘটনার শোক এখনও পুরোপুরি কাটিয়ে ওঠেনি নিউজিল্যান্ড।

ভয়ঙ্কর ওই হত্যাযজ্ঞ এখনও দাগ কেটে আছে অনেকের মনেই। দুই বছর পর আবারও নিউজিল্যান্ড সফরে গেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। এমন এক সময় বাংলাদেশ ক্রিকেট দল নিউজিল্যান্ড সফর করছে যখন আবারও আল নূর মসজিদে হামলার হুমকি দেওয়া হয়েছিল সপ্তাহ দুয়েক আগে। তবে স্বস্তির কথা হল হুমকি দেওয়া সেই দুই ব্যক্তিকে বৃহস্পতিবার গ্রেফতার করেছে দেশটির পুলিশ।

ফেসবুকে লাইক দিন