৮ বছরের এই শিশু মাত্র ৪ মাসে পুরো কোরআন মুখস্ত করলো

ইমান২৪.কম: পাকিস্তানে জন্ম নেওয়া ৮ বছরের এক শিশু মাত্র ৪ মাসে পুরো কোরআন মজিদ হেফজ (মুখস্ত) করে রেকর্ড সৃষ্টি করেছে।

পেশোয়া নামুস, পাকিস্তানে জন্ম নেওয়া ৮ বছরের মেয়ে। এই ছোট্ট বয়সে মাত্র ৪ মাসে পুরো কোরআন শরিফ মুখস্ত করে রেকর্ড সৃষ্টি করেছে।

কোরআন শরিফ হেফজের মাধ্যমে পেশোয়া তার সহপাঠীদের কোরআন মুখস্তের রেকর্ডও ভেঙে দিয়েছে।

কীভাবে এত কম সময়ে পেশোয়া পুরো কোরআন মুখস্থ করেছে তা উঠে এসেছে তার মায়ের এক সাক্ষাতকারে।

সম্প্রতি পাকিস্তানের একটি বেসরকারি টেলিভিশন তার মায়ের একটি সাক্ষাতকার প্রচারিত হয়েছে। ওই সাক্ষাতকারে পেশোয়ার আম্মা বলেন, ‘পেশোয়া নামুস একনিষ্ঠভাবে কোরআনের সবক মুখস্ত করতে বসলে ঘরের দরজা বন্ধ করে পড়তে বসতো।

যতক্ষণ তার সবক মুখস্ত না হতো, ততক্ষণ সে দরজা খুলতো না, কারো সঙ্গে কথা বলতো না- এমনকি খাবারও খেতো না সে।’ পেশোয়ার মা আরও জানান, আল্লাহতায়ালার একান্ত রহমতে খুব অল্পসময়ে পেশোয়া পবিত্র কোরআন মুখস্ত করতে সক্ষম হয়েছে।

ও সারাক্ষণ কোরআন তেলাওয়াত নিয়ে বিচলিত থাকতো। তাকে আমরা বারণ করতাম, সান্তনা ও সাহস দিতাম। কিন্তু ও এসব শুনতে চাইতো না।

এক রাতে ৩টার সময় ঘুম থেকে উঠে দেখি পেশোয়া জায়নামাজে বসে আল্লাহর কাছে কান্নাকাটি করছে। এ থেকে বুঝা যায়, দ্রুত পুরো কোরআন হেফজের বিষয়ে পেশোয়ার প্রতি আল্লাহ তায়ালার বিশেষ রহমত কাজ করেছে।

না হলে এই বয়সি মেয়ের মাঝে এই অনুভূতি আসে কোত্থেকে? সাক্ষাতকারে পেশোয়া বলেন, আমার এক সহপাঠী ৫ মাসে কোরআন মুখস্থ করেছে।

আমি চেয়েছি ওর চেয়ে কম সময়ে কোরআন মুখস্থ করতে। সত্যি কথা কথা বলতে কী, আমি ওকে হারাতে চেয়েছি।

আল্লাহতায়ালা আমাকে সেই সুযোগ করে দিয়েছেন। আমি খুশি, অনেক খুশি।

ফেসবুকে লাইক দিন