২০২১সালে বাংলাদেশ হবে ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত : প্রধানমন্ত্রী

ইমান২৪.কম: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে কাজ করছে সরকার। ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত হবে। আজ শনিবার সকালে পটুয়াখালীতে নির্মাণাধীন তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণে জমি অধিগ্রহণের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোর জন্য তৈনি স্বপ্নের ঠিকানা প্রকল্পের চাবি ও দলিল হস্তান্তরসহ ২১টি প্রকল্পের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালে বাংলাদেশ স্বাধীনতার সুবর্নজয়ন্তী পালন করবে।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীও পালন করা হবে। একই সময়ে বাংলাদেশ হবে ক্ষুধামুক্ত-দারিদ্রমুক্ত সমৃদ্ধ দেশ। প্রধানমন্ত্রী বলেন, দক্ষিণাঞ্চলে ৩০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যে উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। সেই লক্ষ্য শিগগিরই বাস্তবায়ন হবে বলেও জানান সরকার প্রধান। তিনি বলেন, এখানে এনএলজি টার্মিনাল নির্মাণ করা হবে। শেখ হাসিনা বলেন, তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রটি হলে দক্ষিণাঞ্চলের চেহারা বদলে যাবে। এখানে প্রচুর শিল্পকারখানা হবে। বহু মানুষের কর্মসংস্থান হবে। দারিদ্র দূর হবে। প্রচুর বিনিয়োগ হবে। এ অঞ্চলের মানুষের জীবনমান উন্নত হবে। অনুষ্ঠানে নৌমন্ত্রী শাজাহান খান, প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানী বিষয় উপদেষ্টা তৌফিক ইলাহী চৌধুরী, বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সকালে পটুয়াখালী পৌছান শেখ হাসিনা। বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে কলাপাড়ার ধানখালী ইউনিয়নের লোন্দাগ্রামে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী হেলিকপ্টার অবতরণ করে। পায়রা ১৩২০ মেগাওয়াট তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের জমি অধিগ্রহণে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের হাতে ‘স্বপ্নের ঠিকানা’র ঠিকানার চাবি ও দলিল তুলে দিয়ে প্রকল্পের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে আয়োজিত সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন তিনি। এছাড়া সরকারের বিভিন্ন সংস্থার মোট ২১টি উন্নয়ন প্রকল্পের ফলক উন্মোচন করেন।

আরও পড়ুন: চট্টগ্রাম পৌঁছেই মাজার জিয়ারত করলেন ড. কামাল-ফখরুলের

ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের কাছে ক্ষমা চাইতে মাসুদা ভাট্টিকে লিগ্যাল নোটিশ

ফেসবুকে লাইক দিন