হেফাজতের সমাবেশে পুলিশ সদস্যদের মোনাজাতের ছবি ভাইরাল

ইমান২৪.কম: সম্প্রতি ফ্রান্সে মহানবী (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে রাজধানীতে বিক্ষোভ সমাবেশ করছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। সমাবেশ থেকে দেশটির সকল পণ্য বর্জন করার আহবান জানানো হয়।

সোমবার সকালে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর গেইটে হেফাজতে ইসলাম ঢাকা মহানগরীর উদ্যোগে ফ্রান্স দূতাবাস ঘেরাও পূর্ব বিক্ষোভ সমাবেশে সংগঠনটির মহাসচিব আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী এ আহবান জানান।

এদিন দুপুর ১২টার দিকে বিক্ষোভ সমাবেশ শেষে ফরাসি দূতাবাস অভিমুখে লাখো মুসল্লির মিছিল শুরু হয়। একটি ট্রাকে আরোহণ করে মিছিলে নেতৃত্ব দেন হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী ও আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমী।

মিছিলটি শান্তিনগর এলাকায় পৌঁছলে পুলিশি বাধার সম্মুখীন হয়। সেখানে আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী মোনাজাতের মাধ্যমে ঘেরাও কর্মসূচি সমাপ্ত ঘোষণা করেন।

এদিকে ফ্রান্সের দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচির সমাপ্তি অনুষ্ঠানে জুনাইদ বাবুনগরী মোনাজাতের সঙ্গে পুলিশ-জনতার মোনাজাতের বেশ কয়েকটি দৃশ্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। এসব দৃশ্য নেটিজেনদের কাছে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি ছবিগুলো স্বয়ং আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারাও শেয়ার করেছেন।

ফরিদপুরের ভাঙ্গা থানার উপ-পরিদর্শক আজাদ মোনাজাতের একটি ছবি শেয়ার করে লিখেছেন, আমাদের সকলের হৃদয়ের স্পন্দন হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম।

ছবিগুলো শেয়ার করে ইসলামিক অনলাইন এক্টিভিটিস্ট সাইমুম সাদী লিখেন, “ছাল-বাকল সমেত ইসলামকে উপড়ে ফেলার এত চেষ্টার পরও দ্বীনি চেতনা অবশিষ্ট থাকে পুলিশ ভাইদের মধ্যে আলহামদুলিল্লাহ।

এবং জেনে রাখুন এটাই বাংলাদেশের চিরায়ত রূপ ও নিরবে বহমান বিশ্বাসী স্রোতধারা”

সাইফ রহমান নামের আরেকজন লিখেছেন, “নবীর অবমাননা কোনো মুমিন মুসলমান চায়না, এই ছবি দু’টোই তার প্রকৃত উদাহরণ। ভাইদেরকে আল্লাহ কবুক করুন। আমীন”

হেফাজত কর্মীদের সাথে মুনাজাতে অংশ নিয়েছেন দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যরা। এদিকে মহানবী হজরত মোহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে ফ্রান্সের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন, ঢাকায় নিযুক্ত ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার ও দূতাবাস বন্ধের জন্য ২৪ ঘণ্টার সময়সীমা বেঁধে দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। এসময় ২৪ ঘন্টার মধ্যে যদি সংগঠনের দাবি পূরণ না হয়, তাহলে আরও বড় ধরনের আন্দোলন সংগঠিত করার হুমকিও দিয়েছে সংগঠনটি।

সমাবেশে বাবুনগরী বলেন, ‘আমরা চাই আমাদের সরকার আরও ১০০ বছর থাকুক। কিন্তু আমাদের দাবি পূরণ করে ক্ষমতায় থাকতে হবে। সাংবাদিক, গোয়েন্দা বাহিনীর প্রতি শুকরিয়া আদায় করছি। আপনাদের কথা রক্ষা করে এখানেই থেমে গেলাম। প্রয়োজনে আগামী কর্মসূচিতে এখানে থামবো না। ফ্রান্সের দূতাবাসকে টুকরো টুকরো করিয়ে ছাড়বো, ইনশাল্লাহ।’

ফেসবুকে লাইক দিন