হিন্দু সমাজকর্মী স্বামী অগ্নিবেশের ওপর হামলা: মাহমুদ মাদানীর ক্ষোভ

প্রসিদ্ধ সমাজকর্মী স্বামী অগ্নিবেশের ওপর ন্যক্কারজনক হামলার সমালোচনা করে তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন জমিয়তে উলামা হিন্দের জেনারেল সেক্রেটারি সাইয়্যিদ মাওলানা মাহমুদ মাদানী।

মাওলানা মাদানী বলেন, ভিড় সৃষ্টি করে যে নৃশংস কায়দায় একটি অসামাজিক গোষ্ঠী ৮০ বছর বয়সী এই হিন্দু পুরোহিতের ওপর হামলা করেছে, তার বস্ত্রহরণ করছে, তাকে মারধর করেছে তা অত্যন্ত দুঃখের সাথে সাথে ভারতীয় সভ্যতা এবং সংস্কৃতিবাদকে আচ্ছন্ন করা একটি কর্মকাণ্ড।

তিনি বলেন, সম্প্রতি এক ধর্মীয় নেতার ওপর এমন অসভ্য আচরণ এবং তাকে অপমান করার দ্বারা কার্যত এটিই প্রকাশ পেল যে, দেশে পরস্পর সহনশীলতা ও সহমর্মিতার পরিবেশ কতোটা খারাপ।

মাওলানা মাদানী বলেন, ইতোমধ্যেই সুপ্রীম কোর্ট এমন অপরাধীদের গ্রেফতার করার নির্দেশ দিয়েছে। কিন্তু এরপরও এজাতীয় হামলা ও নৃশংস কর্মকাণ্ড দিনদিন বেড়েই চলছে। এর প্রতিকারে তিনি এ বিষয়ের ওপর জোর তাগিদ দিয়েছেন যে, সময় এসে গেছে। যারা সমাজে বিশৃঙ্খলা ও বিদ্বেষ ছড়ায় ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে এখনি তাদের প্রতিহত করতে হবে। তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে এবং দেশের মর্যাদা ও ঐতিহ্য অক্ষুন্ন রাখতে হবে।

উল্লেখ্য,মঙ্গলবার ঝাড়খণ্ডের পাকুড় জেলায় সমাজকর্মী স্বামী অগ্নিবেশের ওপর বিজেপির যুব মোর্চা কর্মীরা হামলা করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনার ভিডিও-ও প্রকাশ্যে এসেছে। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, একটি বাড়ি থেকে বেরোনোর সময় তার ওপর হামলা চালায় একদল লোক। তিনি মাটিতে পড়ে যান। তখনও তাকে মারধর করা হয়। এই হামলার কারণ এখনও জানা যায়নি।
অগ্নিবেশ বলেছেন, ‘আমি যে কোনও ধরনের হিংসার বিরুদ্ধে। আমার ওপর কেন হামলা হল, তা বুঝতে পারছি না’।
পুলিশ জানিয়েছে, ১৯৫ তম ‘দামিন মহোত্সবে’ যোগ দেওয়ার জন্য হোটেল থেকে বেরোনোর পরই ৮০ বছরের অগ্নিবেশের ওপর হামলা চালানো হয়।

ফেসবুকে লাইক দিন