হাতির পিঠে চড়ে মনোনয়নপত্র জমা

ইমান২৪.কম: হাতির পিঠে চড়ে পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন দিনাজপুর জেলার খানসামা উপজেলা জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোনাজাত হোসেন চৌধুরী। তিনি খানসামা উপজেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা দুইটার সময় দিনাজপুর শহরের ফকিরপাড়া এলাকা থেকে গলায় ফুলের মালা, লাঙল হাতে হাতির পিঠে ওঠেন তিনি।

এরপর নেতা–কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে দিনাজপুর শহরের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করেন তিনি। পরে তিনি নেতা–কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে দিনাজপুর জেলা নির্বাচন অফিসের কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামানের নিকট মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর পৌরসভার কাউন্সিলর লাইজু বেগম, রবিউল ইসলাম রবি, খানসামা ‍উপজেলা জাতীয় পার্টির নেতা রুস্তম আলী, রেজাউল করিম, আসাদুল হাসান, মামুনুর রশিদ প্রমুখ।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দিনাজপুর-৪ (চিরিরবন্দর-খানসামা) আসনে জাতীয় পার্টির লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে প্রার্থী হয়েছিলেন মোনাজাত হোসেন। কিন্তু নির্বাচনের প্রায় শেষ মুহূর্তে এসে দলীয় সিদ্ধান্তে প্রেস ব্রিফিং করে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেছিলেন তিনি। এ বিষয়ে মোনাজাত হোসেন বলেন, জাতীয় পার্টি বর্তমানে সংসদে বিরোধী দল হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে।

দলীয় নেতা–কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে উৎসবমুখর পরিবেশ তৈরি ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করার জন্য হাতির পিঠে উঠে ব্যতিক্রমী পরিবেশ সৃষ্টির মাধ্যমে মনোনয়নপত্র জমা দিতে এ আয়োজন। মোনাজাত হোসেন আরও বলেন, ‘জাতীয় পার্টি মহাজোটের শরিক দল। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছিলাম, কিন্তু দলীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ভোট গ্রহণের এক দিন আগে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলাম।

সংসদ নির্বাচনে যেহেতু প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেছি, আশা রাখছি উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ আমাকে সমর্থন দেবে।’ হাতির পিঠে সওয়ার হয়ে মনোনয়পত্র দাখিল করতে আসা নির্বাচনী আচরণবিধির মধ্যে পড়ে কি না, এমন এক প্রশ্নের জবাবে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন,

বিষয়টি নির্বাচনী আচরণবিধিমালা লঙ্ঘনের মধ্যে পড়ে, তবে প্রতীক বরাদ্দের পূর্ব পর্যন্ত বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হয় না। তবে যদি অন্য কোনো প্রার্থী এ বিষয়ে অভিযোগ করেন, তাহলে নির্বাচন কমিশন সে ব্যাপারে পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।

আরও পড়ুন: গরুর ঋণ কোনো দিন শোধ করতে পারব না: নরেন্দ্র মোদি

বাংলাদেশের পদ্মার মা ইলিশ সরিয়ে নিতে ভারতের নতুন 

ফেসবুকে লাইক দিন