হটাৎ যে কারনে ইরানকে কঠোর হুঁশিয়ারি দিলো ডোনাল্ড ট্রাম্প

ইরান’কে কঠোর হুঁশিয়ারি দিলো মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ইরান যদি আবার পরমাণু কর্মসূচি শুরু করে, তাহলে এর কঠিন জবাব দেওয়া হবে বলে। মঙ্গলবার ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরোঁর সঙ্গে তাঁর ওভাল অফিসে ইরানের পরমাণু কর্মসূচি, সিরিয়া ইস্যুসহ অন্যান্য বিষয়ে বৈঠকের পর এমন হুঁশিয়ারি দেন ট্রাম্প।

ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ইরান চুক্তি সম্পর্কে আমার মনোভাব কী-সেটা মানুষ জানেন। এটা একটা ভয়ঙ্কর চুক্তি; যা কখনও স্বাক্ষরিত হওয়া উচিত হয়নি। তারপরও বিষয়টি নিয়ে আমরা কথা বলবো। এই অঞ্চলের নিরাপত্তার জন্য এই ইস্যুটিকে বৃহৎ পরিসরে নিতে হবে।

আরো পড়ুন>> ব্রেকিং: যে কারনে হুমকির মুখে পড়েছে আফগানিস্তানে ২ মিলিয়ন মানুষের জীবন-জীবিকা

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, আপনি যেখানে যান, দেখবেন সেখানেই ইরান। যেখানেই সমস্যা সেখানেই ইরান। সব সমস্যার নেপথ্যে রয়েছে দেশটি। তারা ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা করছে। এটা কেমন চুক্তি (ইরানের সঙ্গে ছয় পশ্চিমা দেশের পরমাণু সমঝোতা) যেখানে এ নিয়ে কোনও আলোচনাই হয়নি? এই কাণ্ডজ্ঞানহীন, হাস্যকর চুক্তিটি কখনও হওয়া উচিত ছিল না। মঙ্গলবার ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ’র সঙ্গে বৈঠকের প্রাক্কালে এমন মন্তব্য করেন ট্রাম্প। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সিএনএন।

এদিকে, ইরানের বিরুদ্ধে যেকোনো ষড়যন্ত্র দৃঢ়তার সঙ্গে মোকাবিলা করা হবে বলে পাল্টা হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। এক সমাবেশে দেওয়া বক্তব্যে আমেরিকা, ইসরায়েল ও কিছু আরব দেশের ষড়যন্ত্র ইরানের উন্নয়নের পথে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি। ট্রাম্পের উদ্দেশে রুহানি বলেন, ২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রসহ ছয় জাতির সঙ্গে স্বাক্ষরিত ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেলে এর পরিণতির জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেছেন, ইরানের জনগণ যে কোনও ষড়যন্ত্র দৃঢ়তার সঙ্গে মোকাবেলা করবে। আমেরিকা, ইসরায়েল ও কিছু আরব দেশের ষড়যন্ত্র উন্নয়নের পথে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারবে না। মঙ্গলবার ইরানের পূর্ব আযারবাইজান প্রদেশে এক জনসমাবেশে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

হাসান রুহানি বলেন, আমেরিকার উচিত নিজের দেওয়া প্রতিশ্রুতি এবং সভ্যতা ও মানবতার প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকা। তারা যদি প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে তাহলে ইরানের জনগণ ও সরকার দৃঢ়তার সঙ্গে যে কোনও ষড়যন্ত্র ও পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দেবে। কেউ ইরানি জাতিকে হতাশায় নিমজ্জিত করতে পারবে না।

তিনি বলেন, ইরান শত্রুদের সম্ভাব্য সব ষড়যন্ত্র মোকাবেলার জন্য প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে। সরকার উন্নয়নের পথে অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখবে। দেশের যে কোনো সমস্যার সমাধানে সরকার মনোযোগী হবে। সূত্র: সিএনএন, আল জাজিরা।

ফেসবুকে লাইক দিন