স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রতিশ্রুতি আনিসুলের অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করার

ইমান২৪.কম: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) উপ-নির্বাচনে পাঁচজন মেয়র প্রার্থীর মধ্যে একমাত্র স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ আব্দুর রহিম তার নির্বাচনী ইশতেহারে বলেছেন, ‘আমি যেহেতু (সাবেক মেয়র) আনিসুল হক ভাইয়ের টেবিল ঘড়ি মার্কা নিয়েই জনতার কাছে এসেছি, তাই আমি তার অসমাপ্ত কাজ সফলতার সঙ্গে বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি।’ শুক্রবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে ইশতেহার ঘোষণা করেন তিনি।

ইশতেহারে ১০টি বিষয় তুলে ধরেছেন আব্দুর রহিম। ঢাকা উত্তর সিটির ২০১৫ সালের মেয়র নির্বাচনে আনিসুল হক টেবিল ঘড়ি প্রতীকে নির্বাচন করে জয়লাভ করেন। তার মৃত্যুতে উত্তর সিটির উপ-নির্বাচনে টেবিল ঘড়ি প্রতীক পেয়েছেন স্বতন্ত্র এই প্রার্থী। ইশতেহারে তিনি বলেন, ‘আমার এলাকায় কোনো বস্তি উচ্ছেদ হবে না। আমি বস্তির স্থানেই বস্তিবাসীদের জন্য পরিকল্পিতভাবে স্থায়ী বহুতল ভবন নির্মাণ করব।

ভাষানটেক পূনর্বাসন প্রকল্পটি তারই দৃষ্টান্ত। আমি ইতোমধ্যে যা করে দেখিয়েছি।’ ‘সমাজে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করার জন্য আমাদের পারিবারিক যে সমস্যাগুলো সাধারণত হয়ে থাকে, কিংবা আইনি যে ঝামেলার কারণে মানুষের মধ্যে বিরোধ তৈরি হয়, বিরোধ সৃষ্টি হওয়ার আগেই তা আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করে দেয়ার উদ্যোগ নেব।

কোটা আন্দোলন, ভোটাধিকার আন্দোলন, নিরাপদ খাদ্য আন্দোলন ও নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের মতো সব আন্দোলনে আমার সমর্থন ছিল ও থাকবে’,- বলেন মোহাম্মদ আব্দুর রহিম।

এ ছাড়া সমাজ ব্যবস্থার উন্নয়ন, মাদক ও সামাজিক অবক্ষয়, সন্ত্রাস ও নানাবিধ অসমাজিক কার্যকলাপের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা, স্কুলে ভর্তি বাণিজ্য, শিক্ষা বাণিজ্য বন্ধ করা, বিনামূল্যে ওষধ বিতরণ, কর্মসংস্থান তৈরি করা, ন্যায্য মূল্যে খাদ্য বিতরণ প্রকল্প চালু করা ও সবার মানবাধিকার রক্ষায় সোচ্চার থাকার প্রতিশ্রুতি দেন এই মেয়র প্রার্থী।

আরও পড়ুন: টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমায় আরো ২ মুসল্লির মৃত্যু

হাতির পিঠে চড়ে মনোনয়নপত্র জমা

ফেসবুকে লাইক দিন