সিলেট থেকে যে বার্তা দিলো ঐক্যফ্রন্ট

ইমান২৪.কম: একাদশ সংসদ নির্বাচন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে করার দাবিতে গড়ে ওঠা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট তাদের প্রথম কর্মসূচি পালন করলো। নানা শঙ্কা আতঙ্কের মধ্যেও বুধবার (২৪ অক্টোবর) পূণ্যভূমি সিলেটের রেজিস্টি মাঠে বিএনপি, গণফোরাম, জেএসডি ও নাগরিক ঐক্যের সমন্বয়ে গঠিত এই ঐক্যফ্রন্ট শান্তিপূর্ণভাবেই জনসভা শেষ করেছে। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতারা সিলেটের এই জনসভাকে দাবি আদায়ে আন্দোলনের টার্নিং পয়েন্ট মনে করেছিলেন। সেখান থেকে কি বার্তা দিবেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা,

তাই সবার চোখ ছিল এই জনসভায়। গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডির) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নাসহ ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতারা বক্তব্য দেন। আন্দোলনের মাধ্যমেই তাদের দাবি আদায় করা হবে। তাই বক্তারা এই ঐক্যকে আরও সুসংহত করতে দেশের সকল পর্যায়ের মানুষকে। বক্তারা বলেছেন, দেশ থেকে গণতন্ত্র হারিয়ে গেছে।

আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলন শুরু হয়েছে সিলেট থেকে। এই আন্দোলনের মাধ্যমে নতুন লড়াই শুরু হলো বলেও তারা বলেন। সেখান থেকে বেগম খালেদা জিয়াসহ সকল রাজবন্দির মুক্তির দাবিও করা হয়। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার এবং বেগম খালেদা জিয়া মুক্ত না হওয়া পর্যন্ত এই আন্দোলন চলবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন বক্তারা। শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের মাধ্যমেই মানুষের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনা হবে, গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করা হবে।

আরও পড়ুন: ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের কাছে ক্ষমা চাইতে মাসুদা ভাট্টিকে লিগ্যাল নোটিশ

ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে গ্রেফতারে ড. কামালের উদ্বেগ, আইনি লড়াইয়ের ঘোষণা

ফেসবুকে লাইক দিন