সালাহ উদ্দিন আহমেদ মুক্তির পর দ্রুত দেশে ফিরতে চান

ইমান২৪.কম: বাংলাদেশের প্রাক্তন মন্ত্রী ও বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন আহমেদকে ভারতের একটি আদালত অবৈধভাবে সে দেশে প্রবেশের দায় থেকে মুক্তি দিয়েছে। তাকে নিজের দেশ, বাংলাদেশে ফেরত পাঠিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে পুলিশকে। তবে কতদিনের মধ্যে সেই রায় কার্যকর করতে হবে, তা নির্দিষ্ট করে কিছু জানায় নি আদালত।

বাংলাদেশে অপহৃত হওয়ার বেশ ক’মাস পর হঠাৎ করেই ২০১৫ সালের ১১ই মে মেঘালয়ের রাজধানী শিলংয়ের গল্ফ লিঙ্ক এলাকায় ভোর সাড়ে পাঁচটা নাগাদ মি. আহমেদকে দেখতে পাওয়া যায়। শুক্রবার রায়ের পরে মি. সালাহ উদ্দিন আহমেদ শিলং থেকে টেলিফোনে বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, “আমি মনে করছি যে ন্যায়বিচার পেয়েছি আদালতের কাছ থেকে।

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার এবং প্রাদেশিক সরকারকে ধন্যবাদ জানাই। তারা আমার চিকিৎসা থেকে শুরু করে সব বিষয়ে সহযোগিতা করেছেন।” “এখন যত দ্রুত সম্ভব প্রত্যাবর্তন প্রক্রিয়াটা সম্পূর্ণ হলেই আমার পক্ষে ভাল।

আমি দ্রুত দেশের মানুষের কাছে ফিরতে চাই।” শিলংয়ের যে এলাকায় তাকে প্রথম দেখা গিয়েছিল, সেখানে প্রাত:ভ্রমণকারী ক’জনকে জিজ্ঞাসা করে তিনি জানতে পারেন যে তিনি শিলংয়ে। পুলিশকে খবর দিয়েছিলেন ওই প্রাত:ভ্রমণকারীরাই।

আরও পড়ুন: চট্টগ্রাম পৌঁছেই মাজার জিয়ারত করলেন ড. কামাল-ফখরুলের

ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের কাছে ক্ষমা চাইতে মাসুদা ভাট্টিকে লিগ্যাল নোটিশ

ফেসবুকে লাইক দিন