সংখ্যালঘুদের হত্যাকারীকে রক্ষা করছে ভারত সরকার

ইমান২৪.কম: আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ অভিযোগ করছে যে, ভারতীয় কর্তৃপক্ষ সে দেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রক্রিয়া পিছিয়ে দিয়েছে।

অনেকে এমনকি নিজেদের হামলাকে যথার্থ প্রমাণের জন্য হামলার শিকার ব্যক্তিদের পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। মঙ্গলবার প্রকাশিত হিউম্যান রাইটস ওয়াচের ‘ভায়োলেন্ট কাউ প্রটেকশান ইন ইন্ডিয়া: ভিজিল্যান্ট গ্রুপস অ্যাটাক মাইনরিটিজ’ শীর্ষক রিপোর্টে এ অভিযোগ তোলা হয়েছে।

১০৪ পৃষ্ঠার ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, ২০১৫ সালের মে থেকে ২০১৮ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত অন্তত ৪৪ জন ব্যক্তিকে হত্যা করা হয়েছে। নিহতদের অধিকাংশই মুসলিম। গরুর মাংস খাওয়া অথবা কোরবানির জন্য গরু নিয়ে যাওয়ার কারণে তাদের হত্যা করা হয়েছে।

ভারতের জনসংখ্যার ৮০ শতাংশই হিন্দু এবং অনেক হিন্দু গরুকে পবিত্র বিবেচনা করে। ভারতীয় সংস্থা ফ্যাক্টচেকারের কাছ থেকে এই সব তথ্য নেয়া হয়েছে। তাদের হিসেবে গত এক দশকে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে যে সব অপরাধ করা হয়েছে, এর মধ্যে ৯০ শতাংশই হয়েছে মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার পর।

উগ্রবাদী জনতা অনেককে গাছে ঝুলিয়ে হত্যা করেছে, অনেককে গলা কেটে আবার অনেককে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে যে, পুলিশ ‘প্রাথমিকভাবে তদন্ত বন্ধ করে দিয়েছে, বিচার প্রক্রিয়া মানেনি, এমনকি ঘাতকদের পক্ষ নিয়ে অপরাধ ধামাচাপা দেয়ারও চেষ্টা করেছে’।

আরও পড়ুন: ভারতকে নিঃশর্ত-সীমাহীন সহায়তা করবে ইসরায়েল

হামলার মহড়া দিতে গিয়ে ভারতের দুই বিমান ধংস

ফেসবুকে লাইক দিন