শীর্ষ সন্ত্রাসী ‘মুরগি সোহেল’ অস্ত্রসহ গ্রেফতার

কিশোরগঞ্জের নিকলী উপজেলার শীর্ষ সন্ত্রাসী নাজিউর রহমান সোহেল ওরফে মুরগি সোহেলকে (৩৫) অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪ এর একটি দল।

সোমবার ভোরে নিকলীর খালিসাহাটি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সোহেল খালিসাহাটি গ্রামের নূরুল ইসলামের ছেলে। র‌্যাব জানায়, নাজিউর রহমান সোহেল ওরফে মুরগি সোহেল একজন দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী। নিকলীর সোয়াইজানি জলমহাল দখলকে কেন্দ্র করে গত ১১ মে সোহেল আগ্নেয়াস্ত্র ও দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালায়।

এক পর্যায়ে আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে গুলিও ছুড়ে। এতে চার শিশুসহ ১০ জন আহত হন। এ ব্যাপারে ১২ মে তার বিরুদ্ধে নিকলী থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

ঘটনার পর থেকে তাকে ধরতে গোয়েন্দা নজরদারি চালায় র‌্যাব। আজ ভোরে বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। এ সময় তার কাছ থেকে দুই রাউন্ড গুলিসহ একটি পিস্তল উদ্ধার করা হয়।

পরে তাকে সঙ্গে নিয়ে অভিযান চালিয়ে তার বাড়ির টয়লেটের পিছনে মাটির নিচে লুকিয়ে রাখা দু’টি পাইপগান, পাঁচ রাউন্ড কার্তুজ, চারটি রামদা ও একটি চাপাতি উদ্ধার করে র‌্যাব। র‌্যাবের কোম্পানী কমান্ডার লেফটেনেন্ট কমান্ডার বিএন এম. শোভন খান জানান, সোহেল দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় নদী,

জলমহাল দখল, ছিনতাই, চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালিয়ে আসছিল। তার অত্যাচারে এলাকার মানুষ অতিষ্ট। অস্ত্রের যোগানদাতার তথ্য সংগ্রহে র‌্যাব তদন্ত করবে বলে তিনি জানান। এ ব্যাপারে নিকলী থানায় মামলা দিয়ে তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

ফেসবুকে লাইক দিন