শায়েখ আরেফির জুমআর খুতবা ও দাওয়াতি কাজে সৌদি সরকারের বাধা

ইমান২৪.কম: সাম্প্রতিক সময়ে সৌদিতে স্বাধীনচেতা ধর্মীয় ব্যক্তিদের আটকের খবর প্রদানকারী টুইটার একাউন্ট ‘ডিটেনইনস অব অপিনিয়ন’ জানিয়েছে, সৌদি সরকার প্রসিদ্ধ দায়ী ডক্টর মুহাম্মাদ আরেফিকে সৌদির সকল মসজিদে খুতবা প্রদান ও সব ধরনের দাওয়াতি কর্মকাণ্ড থেকে বাধা দিয়েছে বলে তারা নিশ্চিত হয়েছে।

ইতোপূর্বে এই একাউন্ট এক টুইট বার্তায় জানায়, সৌদির সরকারি কৌসুলিরা শায়েখ সালমান আওদাহ, আলি উমরি ও আওয আল কারনিকে সন্ত্রাসের সাথে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে বিশেষায়িত ফৌজদারী আদালাতে তাদের মৃত্যুদন্ডাদেশ দাবি করে।

উল্লেখ্য, সৌদি আরবে মুহাম্মাদ বিন সালমান ক্রাউন প্রিন্স হওয়ার পর থেকেই সৌদিতে ব্যাপক দমনাভিযান শুরু হয়; প্রায় একশ ধর্মীয় ব্যক্তিত্বকে কোনো কারণ ছাড়াই গোপনে আটক করা হয়।

তবে ফাস হওয়া বিভিন্ন তথ্যে জানা যাচ্ছে, আটকদের অনেকে যেসব অপরাধ করেনি সেগুলোও স্বীকার করতে বাধ্য করা এবং সরকারের নীতি-বিরোধী অবস্থান থেকে সরে আসার জন্য নির্যাতনও করা হয়েছে।

সূত্র: আল জাজিরা

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তান কাশ্মির ইস্যুতে কাউকে ভয় পায় না: ইমরান খান

সৌদি রাজতন্ত্রের কঠোর সমালোচনা করায় চাকরি হারালেন মরক্কোর খতিব নাজ্জারী

ফেসবুকে লাইক দিন