শরীরের যত্নে ৭ পরামর্শ

শরীরের যত্ন নেবার ইচ্ছা কার না থাকে। অভাব শুধু সময়ের। এই ব্যস্ত জীবনে সংসার, কাজ, লেখাপড়া ইত্যাদি অগনিত ঝামেলা শেষে দেখা যায় নিজের যত্ন নেওয়ার মতো সময় বের করা হয় না। আর সেই কারণেই কী আপনি অবসাদগ্রস্তদের দলে? একেবারেই নয়! মূল কথা হলো নিজেকে ফিট রাখা।

শরীরের যত্ন বললেই আমরা ধরে নিই দামি কোনো প্রসাধনীর ব্যাপারস্যাপার। আসলেই কি তা-ই? বিশেষজ্ঞরা বলেন, হাতের কাছের অনেক উপকরণই হয়ে উঠতে পারে শরীরের যত্ন নেওয়ার দারুণ প্রসাধন। শত ব্যস্ততার মাঝে কিছুটা সময় বের করে নিজের যত্ন নেওয়ার কিছু টিপস নিয়ে এবারের আয়োজন ”শরীরের যত্নে ৭ পরামর্শ”।

১. মুখের ত্বক ঝলমলে রাখতে লবণ-পানিঃ সামান্য পরিমাণ খাবার লবণ পানিতে গুলিয়ে নিন। তারপর সেই পানিতে ভিজিয়ে নিন একটা তোয়ালে। ভেজা তোয়ালেটি দিয়ে মুছে ফেলুন মুখ। দেখবেন, মুখের ত্বকে আসবে তারুণ্যের ঝিলিক। লবণ-পানির এই মিশ্রণ দিয়ে মুখ মুছতে পারেন অফিস বা কাজের ফাঁকেও।

২. ঠোঁট সুন্দর রাখতে তেলঃ অনেক সময়টাই ঠোঁট ফাটে অনেকেরই। এর জন্য লিপজেল তো আছেই। তবে অনেকেরই লিপজেলে অ্যালার্জিও আছে। এ ক্ষেত্রে আমন্ড বা পিচ অয়েল বেশ কেজো। একটা পরিষ্কার টুথব্রাশে তেল মেখে ঠোঁটের ওপর ঘষুন। ঠোঁট ফাটা রোধ হবে এবং দেখতেও হবে আকর্ষণীয়।

৩. আর্দ্র ত্বকের জন্য অলিভ অয়েলঃ ত্বক শুষ্ক হলে কারই বা ভালো লাগে। সমাধান আছে অলিভ অয়েলে। প্রথমে মুখের ওপর স্টিম নিয়ে অলিভ অয়েল মাখুন মিনিট সাতেকের মতো। ত্বক হবে পরিষ্কার, মসৃণ ও উজ্জ্বল। ভালো ফল পেতে চাইলে চার-পাঁচ দিন পর পর মুখে অলিভ অয়েল মাখুন।

৪. ব্রণের দাগ দূর করতে মধুঃ পরদিনই একটা মিটিং কিংবা বিয়ের অনুষ্ঠান, ঠিক সেদিন মুখে উঠে গেল একটা ব্রণ! এ যেন বিরাট এক আতঙ্ক। ব্রণের ওপর মধু মেখে ঘড়ি দেখুন। ১৫ মিনিট পর মধু তুলে ফেলুন হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে। ব্রণের ব্যথা এবং দাগ—দুটিই অনেকাংশে কমে আসবে। আর মেকআপ নিলে ব্রণের দাগও ঢেকে ফেলা যাবে ভালোভাবেই।

৫. ব্রণের আরেক ওষুধ আই ড্রপসঃ ব্রণের দাগ ও ব্যথা দূর করতে আরেকটা ওষুধ বেশ কাজে দেয়। সেটা হলো আই ড্রপস। চোখ লাল হলে অনেকেই আই ড্রপস ব্যবহার করেন। সেই আই ড্রপস দিয়ে একটা কটন প্যাড ভিজিয়ে নিন। তারপর সেটা ফ্রিজে রেখে দিন তিন থেকে পাঁচ মিনিট। ফ্রিজ থেকে বের করে কটন প্যাডটি দিয়ে ব্রণের ওপর হালকা করে ঘষুন; দাগ ও ব্যথা—দুটিই দূর হবে।

৬. মেকআপ তুলতে পানি ও অলিভ অয়েলঃ মেকআপ তুলতে কত আয়োজন! কিন্তু সামান্য পানি আর অলিভ অয়েল হতে পারে দারুণ উপাদান। একটি ছোট বোতলে পানি ও অলিভ অয়েল ৩: ১ অনুপাতে মিশিয়ে নিন। তারপর সেটা দিয়ে ধুয়ে ফেলুন মুখ। মেকআপ তো উঠবেই, মুখটাও হবে দারুণ পরিষ্কার।

৭. বেকিং সোডা দিয়ে চোখের নিচের কালো দাগ দূরঃ বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই সমস্যা পোহাতে হয় অনেককেই। এক টেবিল চামচ বেকিং সোডা নিন। ভালো করে সেটা গুলিয়ে নিন এক গ্লাস গরম পানিতে। একটা কটন প্যাড ভিজিয়ে নিন মিশ্রণটি দিয়ে। তারপর সেটা ঘষুন চোখের চারপাশে। ১০-১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। চোখের চারপাশ ধুয়ে ফেলুন পানি দিয়ে এবং সঙ্গে সঙ্গে ময়েশ্চারাইজার ক্রিম মাখুন ওই অংশে। এভাবে প্রতিদিন চালাতে থাকলে দূর হবে চোখের চারপাশের কালো দাগ।  সূত্র: ব্রাইটসাইড

ফেসবুকে লাইক দিন