শক্তি সঞ্চয় করে এগিয়ে আসছে ঘুর্ণিঝড় ‘যশ’, বাংলাদেশে আছড়ে পড়বে যে সময়

ইমান২৪.কম: আগামী বুধবার (২৬ মে) সন্ধ্যায় ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের খুলনা উপকূলে আঘাত হানবে ঘুর্ণিঝড় ‘যশ’। আম্ফানের প্রায় একবছর পর এবার পশ্চিমবঙ্গে আঘাত হানতে যাচ্ছে সাইক্লোন যশ। আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, আগামী ২৬ মে সকালে যশ ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে পৌঁছাতে পারে। ওইদিন সন্ধ্যায় স্থলভাগে আছড়ে পড়বে যশ।

বুধবার সকাল থেকে ঘণ্টায় ৯০-১০০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো হাওয়া বইবে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া অফিস। তার সঙ্গে ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণ হবে দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায়। ঘূর্ণিঝড় স্থলভাগে আছড়ে পড়ার সময় তার গতিবেগ হবে ঘণ্টায় ১৫৫-১৬৫ কিলোমিটার।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর জানায়, এই মুহূর্তে বঙ্গোপসাগরে নিজের শক্তি বৃদ্ধি করছে নিম্নচাপ। রোববার রাতেই তা গভীর নিম্নচাপে পরিণত হওয়ার কথা। গভীর নিম্নচাপটি সোমবার ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়ে সন্ধ্যা থেকেই পশ্চিমবঙ্গ, ওড়িষ্যা উপকূলে ঘণ্টায় ৪০-৫০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো হাওয়া বইতে পারে।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর রোববার বিকেলে জানায়, বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া গভীর নিম্নচাপ এই মুহূর্তে আন্দামানের পোর্ট প্লেয়ার থেকে ৫৬০ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিম, ওড়িষ্যার বালেশ্বর থেকে ৬৯০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্ব ও পশ্চিমবঙ্গের দিঘা থেকে ৬৭০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছে। সোমবার সকালে এই নিম্নচাপ আরও শক্তি সঞ্চয় করে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। মঙ্গলবারের মধ্যে তা অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে। বুধবার সকালে পশ্চিমবঙ্গ ও ওড়িষ্যা উপকূলে আঘাত হানার কথা।

ঘূর্ণিঝড়টি বুধবার (২৬ মে) সন্ধ্যায় পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ উপকূলে আঘাত হানার আগে দেশজুড়ে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বিশেষ করে খুলনা বিভাগে তুমুল বৃষ্টি হতে পারে। বৃষ্টির এ ধারা মঙ্গলবার (২৫ মে) থেকে শুরু হওয়ার আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস। এছাড়া কোথাও কোথাও ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর রোববার (২৩ মে) আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানিয়েছে, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা, ঢাকা ও সিলেট বিভাগের দুএক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা ও ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

ফেসবুকে লাইক দিন