যুদ্ধের জন্য প্রস্তুতি পাকিস্তানের, হাসপাতালগুলো প্রস্তুত রাখার নির্দেশ!

ইমান২৪.কম: কাশ্মীরে সেনা বহরে হামলার পর ক্রমেই উত্তেজনার বাড়ছে পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে। যদিও দুই দেশের সরকার শান্তিপূর্ণ সমাধানের কথায় বলছে। তবে যুদ্ধের আশঙ্কা পিছু ছাড়ছে না কারো। তারই অংশ হিসেবে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে উভয় দেশ।

সর্বশেয় ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া খবর দিয়েছে, যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে পাকিস্তানের সেনাবাহিনী। এমনকি দেশটির হাসপাতালগুলোকে প্রস্তুত থাকতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে খবরে বলা হয়েছে।

পত্রিকাটি দাবি করছে, তাদের হাতে এমন দুটি নথি এসেছে যা থেকে প্রমাণিত হয় পাকিস্তান ভারতের বিরুদ্ধে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছে। নথি দুটির মধ্যে একটি বেলুচিস্তানের পাকিস্তানি সেনাঘাটির এবং অপরটি পাক অধিকৃত কাশ্মীরের স্থানীয় প্রশাসনকে (পিওকে) দেওয়া একটি নোটিশ।

গত ২০ ফেব্রুয়ারি জিলানি হাসপাতালকে চিঠি দিয়ে জরুরি অবস্থার জন্য তৈরি থাকার নির্দেশ দিয়েছে কোয়েটার পাক সেনাঘাঁটি। হেডকোয়ার্টার্স কোয়েটা লজিস্টিকস এরিয়ার ফোর্স কমান্ডার জিলানি হাসপাতালের আবদুল মালিককে চিঠিতে লিখেছেন, ভারতের সঙ্গে জরুরি ভিত্তিতে যুদ্ধ লাগলে সিন্ধ ও পাঞ্জাব থেকে আহত সেনা ও সাধারণ মানুষ হাসপাতালে আসতে পারে।

প্রাথমিক চিকিৎসা নেওয়ার পর সেই হাসপাতাল থেকে তাদের বেলুস্তানের সিভিল হাসপাতালে পাঠানোর পরিকল্পনা হবে। প্রয়োজন হলে সেনা হাসপাতালের পাশাপাশি সাধারণ হাসপাতালেও ২৫% আসন আহত সৈনিকদের জন্য সংরক্ষিত করে রাখার নির্দেশ দেওয়া হবে।

পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের ভিসা না দিয়ে বড় বিপাকে এখন ভারত

পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের ভিসা না দিয়ে বড় বিপাকে এখন ভারত

ইমান২৪.কম: পাকিস্তানের খেলোয়াড়দের ভিসা না দিয়ে বড় বিপাকে পড়ল ভারত। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আপাতত আর আন্তর্জাতিক অলিম্পিক প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে পারবে না ভারত।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, দিল্লিতে আয়োজিত আন্তর্জাতিক শুটিং বিশ্বকাপে পাকিস্তানের ক্রীড়াবিদ জিএম বসির ও খালিল আহমেদকে ভিসা দেয়নি ভারত। এর বিরুদ্ধে সরব হয় পাকিস্তান শুটিং সংস্থা।

ভারতের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির কাছে আবেদন করে পাকিস্তান খেলোয়াড়রা। ফলে ভারতের ওপর খড়গহস্ত হয় আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি।

অলিম্পিক কমিটি জানিয়েছে, ভারত নিয়ম ভেঙেছে। খেলাধুলোর মধ্যে রাজনৈতিক বিষয় টেনে আনা উচিত নয়। তারা সেটাই করেছে। তাই ভারত এখন থেকে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কোনো খেলাই আয়োজন করতে পারবে না।

ভারতকে চিঠি লিখে অলিম্পিক কমিটিকে জানাতে হবে যে, তারা সব প্রতিযোগীকে আসতে দিতে চায়। তার পরেই ভারত প্রতিযোগিতা আয়োজনের অনুমতি পাবে।

আরও পড়ুন:  পাক-ভারত সীমান্তে গোলাগুলি : মর্টার শেল ও ভারী গোলাবর্ষণ

চুপ করে বসে থাকবো না, পাল্টা হামলা চালাব: ইমরান খান

হামলার জবাব দিতে কতটুকু প্রস্তুত ভারতের সেনাবাহিনী?

ভারত-পাকিস্তান সিমান্ত রণসাজে সজ্জিত, ৬০০ ট্যাংক পাঠালো পাকিস্তান

আবারও ব্যাপক সংঘর্ষ কাশ্মীরে, ভারতীয় বাহিনীর মেজর-সহ নিহত ৫

জাপানি নারীর ইসলাম গ্রহণের হৃদয়বিধারক ঘটনা ও পর্দার প্রতি সন্মান

ফেসবুকে লাইক দিন