মেয়াদোত্তীর্ণ চিকেন-ফ্রেঞ্চ ফ্রাই বিক্রি, জরিমানা ২০ লাখ

ইমান২৪.কম: বিদেশ থেকে আমদানি করা চিকেন ফ্র‍্যাং, ফ্রেঞ্চ ফ্রাইয়ের মেয়াদ শেষ হলে সেগুলো কিনে এনে নতুন করে মেয়াদ বাড়িয়ে প্যাকেটিং করছিল কমলা টেডার্স নামের একটি প্রতিষ্ঠান।

দীর্ঘদিন ধরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারের খান হোটেলের দোতলার একটি গোডাউন ভাড়া নিয়ে চলছিল এই কাজ। এসব মেয়াদোত্তীর্ণ খাদ্যসামগ্রী তারা পাইকারি ও খুচরা দামে বিক্রিও করছিল।

শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত কারওয়ান বাজারে অভিযান চালিয়ে প্রতিষ্ঠানটিকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এসময় ১০ লাখ টাকার বেশি মূল্যের চিকেন ফ্র‍্যাং, ফ্রেঞ্চ ফ্রাই, চিজ, ঘি, বিস্কুটসহ বিভিন্ন খাদ্যসামগ্রী জব্দ করা হয়। র‌্যাব-২ এর উপ-অধিনায়ক মেজর এইচ এম পারভেজ আরেফিনের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম।

এদিকে, ভেজাল ও মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য বিক্রির অভিযোগে আরেকটি প্রতিষ্ঠানকে ছয় লাখ টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এর আগে কারওয়ান বাজার মাছের বাজারে অভিযান চালিয়ে দুই টন বিদেশি মাগুর, পিনারহা মাছ ও রং মিশ্রিত কয়েক মণ মাছ জব্দ করা হয়। এসময় পাঁচজনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেওয়া হয়।

র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম বলেন, শিশুসহ সব বয়সীদের পছন্দের তালিকায় রয়েছে চিকেন ফ্র্যাং ও ফ্রেঞ্চ ফ্রাইয়ের মতো খাবার।

এগুলো বাচ্চারা বেশি করে খায়। কারওয়ান বাজারের অভিযানে জব্দ করা গুদাম বা হিমায়িত যেসব প্রোডাক্ট পাওয়া গেছে সবই মেয়াদোত্তীর্ণ। এগুলো তারা আবার রিপ্যাক করে।

যেমন একটা প্যাকেটে দেখা গেছে, (যার নম্বার ১৮/৩০ ৬/২ এর) উৎপাদন ডেট দেওয়া আছে ২৪-০১-২০২০ এবং মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ দেওয়া আছে ২৫-০৯-২০২১।

এই প্রোডাক্টগুলো নেদারল্যান্ডের। মেয়াদ শেষ হবার পর তারা নতুন করে প্যাকেটিং করেছিল। যেগুলো এখানে বসেই রিপ্যাক করা হয়েছে। এই পণ্যগুলো কমলা টেডার্স আবার খুচরা বাজারে বিক্রি করে।

ফেসবুকে লাইক দিন