মেসওয়াক করার সঠিক পদ্ধতি ও ফজিলতঃ বিস্তারিত..

· সুন্নাতি আমল মেসওয়াক গুরুত্বপূর্ণ একটি সুন্নাতি আমল। প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম অনেক বেশি মেসওয়াক করতেন। কারণ প্রিয় নবীর ভাষায়, ‘মেসওয়াক মুখের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার মাধ্যম এবং আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের উপায়।’ (বুখারি দ্রষ্টব্য )

· গুরুত্ব ও ফজিলত উম্মুল মুমিনিন হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম মেসওয়াক করার গুরুত্ব সম্পর্কে বর্ণনা করেন- ‘মেসওয়াকবিহীন নামাজের চেয়ে মেসওয়াক করে যে নামাজ আদায় করা হয়, তাতে সত্তর গুণ বেশি ফজিলত রয়েছে।’ (বায়হাকি দ্রষ্টব্য )

· অন্য এক হাদিসে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, এমনটি কখনো হয়নি যে, জিব্রাইল আলাইহিস সালাম আমার নিকট এসেছেন আর আমাকে মিসওয়াকের আদেশ দেননি। এতে আমার আশঙ্কা হচ্ছিল যে, মিসওয়াকের কারণে আমার মুখের অগ্রভাগ ছিলে না ফেলি। (মুসনাদে আহমদ, মিশকাত)

· রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম মেসওয়াকের গুরুত্বারোপ করতে গিয়ে বলেন, আমি যদি উম্মতের উপর কষ্ট হবার আশংকা না করতাম তাহলে প্রত্যেক নামাজেই মেসওয়াক করার আদেশ দিতাম। (বুখারী শরীফ, হাদীস নং৮৮৭, মুসলিম শরীফ, হাদীস নং২৫২)

· মেসওয়াকের ব্যবহার >> মুখের ডানদিক থেকে মেসওয়াক শুরু করা।

>> দাঁতের প্রস্থের দিক থেকে মেসওয়াক করা। অর্থাৎ দৈঘ্যের দিক থেকে (উপর-নিচে) নয়। >> ডান হাতের কনিষ্ঠাঙ্গুলী মেসওয়াকের নিচে রেখে আর তর্জনী, মধ্যমা ও শাহাদাত আঙ্গুল মেসওয়াকের ওপর রেখে বৃদ্ধাঙ্গুলীর পেট দ্বারা ভালভাবে ধরা।

>> ঘুম থেকে ওঠার পর মেসওয়াক করা। >> অজুতে কুলি করার আগে মেসওয়াক করা। অনেকে ওজুর শুরু করার আগে মেসওয়াক করার কথা বলেছেন।

>> নামাজ আদায়ের আগে মেসওয়াক করা। >> কুরআন-হাদিস পড়ার আগে মেসওয়াক করা। কুরআন-হাদিস পড়ার আগে মেসওয়াক করাকে অনেকে মুস্তাহাব বলেছেন।

>> মানুষের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাতের আগে মেওয়াক করা। >> কোনো মজলিসে যাওয়ার আগে মেসওয়াক করা। >> ঘরের প্রবেশ করে মেসওয়াক করা।

>> মুখে দুর্গন্ধ ছড়ালে মেসওয়াক করা। >> দাঁতে হলুদ আবরণ বা ময়লাযুক্ত হলে মেসওয়াক করা। >> ক্ষুধা লাগলে মেসওয়াক করা। >> জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে মেসওয়াক করা।

· শেষ কথা মেসওয়াক করার ফলে মানুষের পাকস্থলী শক্তিশালী হয়, জ্ঞান ও স্মরণ শক্তি বাড়ে, কুলুষমুক্ত অন্তর তৈরি হয়, ফেরেশতারা মেসওয়াককারীর জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করে। সর্বোপরি মেসওয়াকের ফলে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জিত হয়।

ইসলামী বিভিন্ন বিষয়ে জানতে আমাদের সাইটে নিয়মিত ভিজিট করুন

লেখক ও সম্পাদকঃ মুফতি শহীদুল্লাহ নজীব আল-হাবিবী

ফেসবুকে লাইক দিন