মুরসীর ছেলে আবদুল্লাহকে কৌশলে হ’ত্যা করা হয়েছে: মুসলিম ব্রাদারহুড

ইমান২৪.কম: মি’শরে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রথম প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসির ছোট ছেলে আবদুল্লাহ মুরসি’র মৃ’ত্যুকে র’হস্য’জনক হিসেবে ঘোষণা করেছে মুসলিম ব্রা’দারহুড বা ইখওয়ানুল মুসলিমিন।

বুধবার রাতে আব্দুল্লাহ মু’রসি মা’রা গেছেন। মৃ’ত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ২৪ বছর। তার বাবার মৃ’ত্যুর দুই মাস পর তিনি মা’রা গেলেন। ইখওয়ানুল মুসলিমিন এক বিবৃতিতে বলেছে, আব্দুল্লাহ মুরসি ছিলেন খুবই তরুণ।

এতো অল্প বয়সে তার হৃ’দরোগে আ’ক্রা’ন্ত হওয়ার বিষয়টি র’হস্য’জনক। আবদুল্লাহ মুরসি’র ভাই আহমেদ বলেছেন, আবদুল্লাহ রাজধানী কায়রোয় বন্ধুর সঙ্গে গাড়ি চালাচ্ছিলেন।

এ সময় হ’ঠা’ৎ খিঁচুনির পর অ’সু’স্থবোধ করেন। এরপরই তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানেই তার মৃ’ত্যু হয়। বাবার মৃ’ত্যুর জন্য প্রথম থেকেই দেশটির নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের দায়ী করে আসছিলেন আব্দুল্লাহ মুরসি।

তিনি পরিবারের মুখপাত্র হিসেবেও দায়িত্ব পালন আসছিলেন। এ কারণে তাকে কৌ’শলে হ’ত্যা করা হতে পারে বলে অনেকেই আ’শঙ্কা করছে।

২০১২ সালে দেশটির প্রথম গণতান্ত্রিক নির্বাচনে প্রেসিডেন্ট হিসেবে জয়লাভ করেন মোহাম্মদ মুরসি। এর মাত্র এক বছরের মাথায় সেনা অ’ভ্যুত্থা’নের মাধ্যমে তাকে ক্ষম’তা’চ্যুত করেন তৎকালীন সেনাপ্রধান ও বর্তমান প্রে’সিডেন্ট আ’ব্দুল ফাত্তাহ আস সিসি।

১৭ জুন আদালতে শুনানি চলাকালে মু’রসি মৃ’ত্যুবরণ করেন। সরকার বলেছে, হৃ’দরো’গে আ’ক্রা’ন্ত হয়ে তিনি মা’রা গেছেন। তার ছেলের মৃ’ত্যুর ক্ষেত্রেও হৃ’দরোগের কথা বলা হচ্ছে।

ফেসবুকে লাইক দিন