মিলাদের কথা শুইনা নাতিরে নিয়া আইলাম, অহোন দেহি ঢোল পেটায়

গাজিপুর সিটি নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে, তার উপস্থিতিতে একটি মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে ঢাক-ঢোল পেটানোতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন উপস্থিত লোকজন।

আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে। আচরণবিধির তোয়াক্কা না করে তার ছবি ও দলীয় নৌকা প্রতীক সম্বলিত লিফলেট কর্মী-সমর্থকরা বিভিন্ন এলাকায় বিলি করছেন বলে জানা গেছে

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বুধবার সকালে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৩০নং ওয়ার্ডস্থ কানাইয়া এলাকার কানাইয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে জাহাঙ্গীর আলমের নামে ‘বিশেষ দোয়া মাহফিলের’ আয়োজন করা হয়।

এই বিশেষ দোয়া মাহফিলে দুপুর ১২টার দিকে জাহাঙ্গীর আলম দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে অংশগ্রহণ করেন। অনুষ্ঠানে জাহাঙ্গীর আলমের আগমনের আগে ও পরে ওই এলাকায় মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা করেছে তার কর্মী-সমর্থকরা।

অনুষ্ঠান মঞ্চের ব্যানারে ‘বিশেষ দোয়া মাহফিল’ লেখা থাকলেও জাহাঙ্গীর আলমের উপস্থিতিতেই মঞ্চের পাশে ব্যান্ডপার্টিকে ঢাক-ঢোল পেটাতে দেখা গেছে। এতে দোয়া মাহফিলে আগতদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত প্রবীণ বাসিন্দা আলী আকবর (৬০) বলেন, ‘মিলাদের কথা শুইনা নাতিরে নিয়া আইলাম। অহোন দেহি ঢোল পেটায়।’

এলাকাবাসী জানায়, জাহাঙ্গীর আলমকে সংবর্ধনা দেয়ার জন্য স্কুলের অর্ধশতাধিক শিশু শিক্ষার্থী স্কুলের পোশাক পরে মুখোমুখি সারিবদ্ধভাবে দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে ছিল। পরে জাহাঙ্গীর আলম দাঁড়িয়ে থাকা শিশুদের দুই সারির মধ্য দিয়ে বিশেষ দোয়া মাহফিল মঞ্চে প্রবেশ করেন। এসময় শিশু শিক্ষার্থীরা তাকে ফুল ছিটিয়ে শুভেচ্ছা জানায়।

ফেসবুকে লাইক দিন