মিরপুরে বস্তিতে ভয়াবহ আগুন: পানি সংকটে পরেছে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা

ইমান২৪.কম: রাজধানীর মিরপুর ৭ রূপনগর থানার পেছনে চলন্তিকার মোড়ে বস্তিতে লাগা আগুন নেভাতে হিমশিম খাচ্ছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। পানি সরবরাহে বেগ পেতে হচ্ছে তাদের।

আগুন নিয়ন্ত্রণে পানির সংকট কাটিয়ে উঠতে আশেপাশের বহুতল ভবনের রিজার্ভ ট্যাঙ্কিতে পানির পাইপ লাগিয়ে মেশিনের সাহায্যে ঘটনাস্থলে পানি সরবরাহ করার চেষ্টা করছেন ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা।

শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে আগুনের সূত্রপাত হয়। তাৎক্ষণিকভাবে আগুন লাগার কারণ এবং ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে জানা যায়নি।

জানা যায়, ওই এলাকার পাশাপাশি রূপনগর বস্তি, চলন্তিকা বস্তি ও ৭ নম্বর আরামবাগ বস্তি রয়েছে। তিনটি বস্তির মাঝে এই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। ফলে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। প্রায় ১০ হাজারের মতো ঘর রয়েছে বস্তিগুলোতে।

ঈদ উপলক্ষ্যে অধিকাংশ ঘরের বাসিন্দারাই ঢাকার বাইরে। তালাবদ্ধ ঘরগুলোতে দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ছে।

এদিকে ক্ষতিগ্রস্তদের আহাজারিতে ভারি হয়ে গেছে বাইরের পরিবেশ। চলন্তিকার মোড়ের সবকটি রাস্তায় সাধারণ যান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ।

আরো পড়ুন: পরমাণু অ*স্ত্র ব্যবহারের হুঁশিয়ারি দিল ভারত

যুদ্ধ পরিস্থিতি দেখা দিলে, শত্রুপক্ষের বিরুদ্ধে ভারত কখনও প্রথমে পরমাণু অ*স্ত্র ব্যবহার করবে না এমন একটি নীতি রয়েছে। এবার সেই নীতিতে বদল ঘটাতে চলেছে নরেন্দ্র মোদী সরকার। শুক্রবার এমনই ইঙ্গিত দিলেন দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংহ।

ভারতের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ীর স্মরণে রাজস্থানের পোখরানে আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে এ ইঙ্গিত দেন তিনি। সেখানে তিনি বলেন, ‘ভারতকে পরমাণু শক্তিধর রাষ্ট্রে পরিণত করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ছিলেন অটলজি। তবে পরমাণু অস্ত্রের প্রথম ব্যবহার আমরা করব না, এই নীতিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ছিলেন তিনি।

এখন পর্যন্ত সেই নীতি মেনেই চলছে ভারত। তবে ভবিষ্যতে পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে পরমাণু অস্ত্র প্রয়োগ করবে ভারত।’

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর পাকিস্তান ও ভারতের রাজনৈতিক সম্পর্কে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। ফলে রাজনাথের এই মন্তব্যকে অনেকেই পাকিস্তানের প্রতি হুঁশিয়ারি হিসেবেই দেখছেন।

ফেসবুকে লাইক দিন