মামুনুল হক চাইলে মানহানী ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করতে পারবেন: জয়নুল আবেদীন

ইমান২৪.কম: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ের রয়্যাল রিসোর্টে স্ত্রীসহ বেড়াতে গিয়ে ছাত্রলীগ-যুবলীগের হাতে হামলা-নির্যাতনের শিকার হয়েছেন হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মামুনুল হক।

তিনি বার বার নিজের স্ত্রী পরিচয় দিলেও ছাত্রলীগ-যুবলীগ কর্মীরা তাকে মারধর করে কাপড় ছিড়ে ফেলে। এমনকি বিষয়টি ফেসবুকে লাইভ সম্প্রচার করা হয়। সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সভাপতি জয়নুল আবেদীন বলেন, আওয়ামী লীগের চরিত্রই মানুষকে হেনস্থা করা।

দেশে আইনশৃঙ্খলা নেই, মানুষের ব্যক্তি স্বাধীনতা নেই-এটাই প্রমান করে। বিষয়টি অসম্ভব মানহানীকর হয়েছে। একজন মানুষের চলা-ফেরার অধিকার সংবিধান তাকে দিয়েছে। এটি মৌলিক অধিকার। মামুনুল চাইলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে পারেন।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ বলেন, স্বাধীনতার ৫০ বছর পর এই ঘটনা থেকেই বুঝা যায় দেশের পরিস্থিতি কোনদিকে যাচ্ছে। মানুষের প্রত্যেকটা অধিকারের সঙ্গে রাজনীতি ঢুকে গেছে।

এখানে ব্যক্তিগত স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করা হয়েছে, যা সংবিধানের লঙ্ঘন। এর পেছনে রাজনৈতিক খেলা থাকতে পারে বলে মনে করেন মনজিল মোরসেদ। এছাড়া ওই ঘটনায় কয়েকটি টিভি চ্যানেলের ভূমিকা নিয়েও ক্ষোভ জানান তিনি।

ফেসবুকে লাইক দিন