মাদ্রাসার সভাপতি হতে না পেরে ভাঙচুর-লুটপাট যুবলীগ নেতার

ইমান২৪.কম: মাদ্রাসা ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি হতে না পেরে যুবলীগ নেতার নেতৃত্বে ওই প্রতিষ্ঠানে ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার বালিপাড়া ইউনিয়নের উত্তর পশ্চিম কলারন আজাহার আলী দাখিল মাদ্রাসায় এ ঘটনা ঘটে।

মাদ্রাসা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ১০ বছর ধরে এ মাদ্রাসাটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন বালিপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ও ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান।

গত সোমবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হোসাইন মুহাম্মদ আল মুজাহিদের উপস্থিতিতে ব্যবস্থাপনা কমিটির নতুন সভাপতি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

এ নির্বাচনে হেরে যাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন মিজান। শিক্ষকদের হুমকি দিতে থাকেন। তাই বাধ্য হয়ে প্রতিষ্ঠান প্রধান মঙ্গলবার মাদ্রাসাটি বন্ধ রাখেন।

গতকাল বুধবার বেলা ১১টার দিকে মাদ্রাসার অফিস কক্ষে এসে সুপার আবদুস সালামের কাছে নির্বাচন সংক্রান্ত কাজগপত্র দেখতে চান মিজান।

এ সময় সুপার সব নথিপত্র বিকালে একটি কপি তাকে দেবেন বলে আশ্বস্ত করেন। কিন্তু তারপরও ওই সময়েই সব কিছু তাকে দেখাতে চাপ সৃষ্টি করেন।

চাপের মুখে পড়ে মিজানকে সব নথিপত্র দেখান সুপার। এ সময় কাগজপত্র দেখতে দেখতে সব গুছিয়ে নিয়ে দৌড়ে বের হয়ে যান মিজান।

সুপার আবদুস সালাম তার পিছু নিতে গেলে তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয়। একটু পর মিজান তার লোকজন নিয়ে ফিরে এসে হামলা চালান।

মাদ্রাসা ভবনে সবাইকে অবরুদ্ধ করে শ্রেণি ও অফিস কক্ষে ভাঙচুর করেন মিজান ও তার লোকজন।

ফেসবুকে লাইক দিন