মাদরাসা পাঠ্যক্রম পরিবর্তন করতে চায় পাকিস্তানে ইমরান খানের সরকার

ইমান২৪.কম: পাকিস্তানের নতুন সরকার মাদরাসা পাঠ্যক্রম পরিবর্তন করতে চায়। যেমনটি চেয়েছিলো এর আগের সরকার জেনারেল পারভেজ মোশাররফ।

পারভেজ মোশাররফই সর্বপ্রথম দেশটির মাদরাসা পাঠ্যক্রম পরিবর্তন করার প্রস্তাব তুলেছিলেন। তার সরকার মাদরাসা পাঠ্যক্রম বিবেচনা করে জাতীয় শিক্ষাধারার সঙ্গে মেলাতে প্রস্তাব করে।

বর্তমান সরকার সে প্রস্তাবের ভিত্তিতেই মাদরাসা সিলেবাস পরিবর্তন করতে চায়। ভয়েস অফ আমেরিকার সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেছেন ফেডারেল শিক্ষামন্ত্রী শফকাত মাহমুদ।

তিনি বলেন, দেশে অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও পাঠ্যক্রম আছে, যার ফলে সমাজের বিভিন্ন চিত্র ও বিভাজন দেখা যায়।

বর্তমান সরকার চায়, মৌলিক পাঠ্যক্রম সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে থাকতে হবে, চাই তা সরকারি হোক বা বেসরকারি কিংবা মাদরাসা সব শিক্ষা ব্যবস্থা। শিক্ষায় বিভিন্নতার পরিবর্তে এক ধরনের ডিগ্রি অর্জন করলে দেশের উন্নতি বেগমান হবে।

শাফকাত মাহমুদ বলেন, মৌলিক পাঠ্যক্রমে মাদরাসায় পড়ুয়ারাও পড়তে পারবে। পড়ার অনুমতি দেওয়া হবে তাদেরও। এ চিন্তা সামনে রেখে সরকার অচিরেই মাদরাসাগুলিসহ সমস্ত শিক্ষা ব্যবস্থাপকদের সঙ্গে কথা বলবেন।

তবে জমিয়তে উলামা ইসলামের প্রধান মাওলানা ফজলুর রহমান গতকাল এক বিবৃতিতে বলেন, মাদরাসা পাঠ্যক্রম পরিবর্তন করতে সম্মতি দেব না আমরা।

মাদরাসা শিক্ষা বর্তমান সময়ের সঙ্গে মিল রাখে কি না? ভয়েস অফ আমেরিকার এ প্রশ্নের উত্তরে জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মুখপাত্র মাওলানা করিম উসমান বলেন, বিদ্যালয় স্কুল কলেজের পাঠ্যক্রম পরিবর্তন করা যেতে পারে তবে মাদরাসার পাঠ্যক্রম পরিবর্তন সম্ভব নয়। কারণ তাতে কুরআন হাদিস ও তার ব্যাখ্যা বিশ্লেষণই হলো আসল পাঠ্য। এগুলো কে কিভাবে পরিবর্তন করবে।

জমিয়তে আহলে হাদিসের অধ্যাপক সাজিদ মির মনে করেন মাদরাসা শিক্ষাক্রমের সঙ্গে কিছু আধুনিক কোর্স মৌলিকভাবে পাঠ্যসূচিতে অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে। মাদরাসা শিক্ষার্থীরা ইংরেজি, গণিত বা কম্পিউটার বিজ্ঞান শিক্ষায় এগিয়ে থাকলে ক্ষতি কী, তবে কিছু সেমিনার বা কোর্স পাঠ্যক্রমে দিলেও কুরআন হাদিসে নাক গলানো ঠিক হবে না।

পাকিস্তান উলামা কাউন্সিলের হাফিজ তাহের আশরাফি বলেন, মাদরাসার পাঠক্রম পরিবর্তন হচ্ছে। বর্তমান পাঠ্যক্রম আধুনিক শিক্ষা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা নতুনভাবে বিজ্ঞান পড়ছে। সরকার যদি তাতে আবারো পরিবর্তন আনতে চায় তাহলে স্কুল ও মাদরাসার পাঠ্যক্রমের বড় বড় জ্ঞানীদের নিয়ে বসে পরিবর্তন করলে দেশ ও দশের উপকার হবে বলে আশা করি।

তবে সরকার যদি মাদরাসা নিয়ন্ত্রণ করতে চায় তাহলে সবার এক হতে হবে।

ধর্মীয় নেতা আল্লামা আহমদ জাভেদ বলেন, স্কুল কলেজের পাঠ্যক্রম পরিবর্তন করা হলে কোনো সমস্যা নেই। তবে মাদরাসা সিলেবাসের সঙ্গে ধর্মের সম্পর্ক তাই গুরুত্ব দিয়ে আলোচনা করতে হবে।

বিশ্লেষকরা বিশ্বাস করেন মাদরাসা এমনিতেই সংবেদনশীল। তাই এ বিষয়ে প্রদক্ষেপ নিতে সাবধানতা আশা করেন তারা।

আরো পড়ুনঃ এরদোগানের বৈচিত্রময় জীবনের অজানা ১৫ তথ্য

মার্কিনবিরোধী জোট গঠনের জন্য বিশ্ববাসীকে তুরস্কের আহ্বান

হাসপাতাল থেকে উম্মাহর প্রতি হাজি আবদুল ওয়াহহাব সাহেবের বার্তা

ফেসবুকে লাইক দিন