মাতৃভাষা দিবস পালনে চাঁদাবাজির অভিযোগ, নেতাসহ যুবলীগকর্মী বহিষ্কার

ইমান২৪.কম: আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনের জন্য চাঁদাবাজির অভিযোগে যুবলীগের এক নেতাসহ তিন কর্মীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বহিষ্কৃত নেতা হলেন রংপুরের মিঠাপুকুরের বড়বালা ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাতেন। আর কর্মীরা হলেন- একই ইউনিয়নের যুবলীগের সদস্য মো. নুরুজ্জামান, খোকন ও হাবিব।

ওই যুবলীগ নেতা ও কর্মীদের বিরুদ্ধে চাঁদার দাবিতে এক ব্যাংক কর্মকর্তাকে মারপিট ও অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ রয়েছে। এ অভিযোগে মঙ্গলবার বড়বালা ইউনিয়ন সম্পাদক আব্দুল বাতেনকে বহিষ্কার করা হয়। এরপর বুধবার বহিষ্কার করা হয় কর্মীদের।

স্থানীয় লোকজন সূত্রে জানা গেছে, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনের লক্ষ্যে ছড়ান দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে উপজেলার বড়বালা ইউনিয়ন যুবলীগ। এ লক্ষ্যে নেতাকর্মীরা স্থানীয়ভাবে সুধী ও প্রতিষ্ঠানের কাছে চাঁদা দাবি করে চিঠি দেন।

সোমবার বিকালে বড়বালা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাতেন মিয়া ও যুবলীগের সদস্য মো. নুরুজ্জামান, খোকন এবং হাবিবসহ কয়েকজন কর্মী স্থানীয় কয়েকটি দপ্তরে চাঁদার টাকা চাইতে যান। এসময় গ্রামীণ ব্যাংক বড়বালা শাখার ব্যবস্থাপক হায়াৎ মাহমুদের সঙ্গে তাদের কথা কাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে বাতেনের নেতৃত্বে ওই যুবলীগ কর্মীরা গ্রামীণ ব্যাংক শাখা ব্যবস্থাপককে মারপিট করে ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে যান। সেখানে একটি কক্ষে অবরুদ্ধ করে রাখেন। পরে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপে হায়াৎ মাহমুদকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এ অভিযোগে উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক শাহ আসাদুজ্জামান সোহাগ ও যুগ্ম আহ্বায়ক মোন্নাফ হোসেন স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ওই যুবলীগ কর্মীদের সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়।

গ্রামীণ ব্যাংক বড়বালা শাখার ব্যবস্থাপক হায়াৎ মাহমুদ বলেন, আব্দুল বাতেন অবৈধভাবে আমার কাছে চাঁদা দাবি করেছিলেন। আমি দিতে অস্বীকার করায় তারা আমার উপর হামলা চালায়। আমাকে টেনে হিঁচড়ে ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে আটকে রাখে।

আরও পড়ুন: ভারতকে নিঃশর্ত-সীমাহীন সহায়তা করবে ইসরায়েল

হামলার মহড়া দিতে গিয়ে ভারতের দুই বিমান ধংস

ফেসবুকে লাইক দিন