মসজিদ যেখানে হয়, কিয়ামত পর্যন্ত সেখানে মসজিদই থাকবে: আতাউল্লাহ হাফেজ্জী

ইমান২৪.কম: আল্লামা আতাউল্লাহ হা’ফেজ্জী বলেছেন, ভারতের সুপ্রিমকোর্ট হিন্দুত্ববাদের পক্ষে রায় দিয়ে ভারতের সাংবিধান লঙ্গন করেছে। এ রায়ে প্রমাণ হয়েছে যে,

বর্তমান ভারত সরকার একটি সাম্প্রদায়িক ও সন্ত্রাসী সরকার। আদালত এ সাম্প্রদায়িক উগ্র হিন্দুত্ববাদী সরকারের কাছে জিম্মি। তাদের চাপেই মসজিদের জায়গায় মন্দির নির্মানের এ অবৈধ ও

অযৌক্তিক রায় ঘোষণা করেছে। বাবরি মসজিদের স্থানে মসজিদই হবে, মন্দির নয়। আল্লাহর ঘর মসজিদ যেখানে হয়, কিয়ামত পর্যন্ত সেখানে মসজিদই থাকবে। মসজিদের স্থান পরিবর্তনের

কোনো সুযোগ নেই। মুসলমানরা কারো খয়রাতি জায়গায় মসজিদ করবে না। তিনি বাবরি মসজিদ রক্ষায় বিশ্বমুসলিমকে ঐক্যবদ্ধ ভূমিকা রাখার আহবান জানান। আজ বিকালে কামরাঙ্গীরচরে

বাবরি মসজিদের স্থানে মন্দির নির্মাণের অবৈধ রায়ের প্রতিবাদে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের বিক্ষোভ মিছিল শেষে এক সমাবেশে সভাপতির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। এতে আরো বক্তব্য

রাখেন দলের নায়েবে আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি সুলতান মহিউদ্দীন, মাওলানা সাজেদুর রহমান ফয়েজী, মুফতি আফম আকরাম হুসাইন ও মুফতি

আবুল হাসান প্রমুখ। মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী বলেন, আইন-আদালত প্রমানের ভিত্তিতে জমিনের মালিকানা নির্ধারন করতে পারে, কিন্তু মানুষের ধর্মীয়স্থান ও ধর্মীয় বিশ্বাস নির্ধারণের

ক্ষমতা আদালতের নেই। শুধু বাবরী মসজিদ নয়, ভারতের বিভিন্ন স্থানে উগ্র হিন্দুরা অসংখ্য মসজিদ ভেঙ্গে তদস্থলে মন্দির নির্মাণ করছে, আর সরকার গুন্ডাদের মদদ দিচ্ছে। যা মুসলিম বিশ্ব মেনে নিতে পারে না। মসজিদের জায়গায় মন্দির হলে ভারত টুকরো টুকরো হয়ে যাবে।

ফেসবুকে লাইক দিন