মসজিদে তারাবি নামাজের জামায়াত: সৌদি আরবের সিদ্ধান্তকেই অনুসরণ করা হতে পারে

এখনবাংলা: তারাবির নামাজ নিয়ে সিদ্ধান্ত এখনো চূড়ান্ত হয়নি৷ করোনা পরিস্থিতি বিচার করে প্রয়োজন হলে আগের নির্দেশনায় পরিবর্তন আনা হতে পারে৷

কিন্তু পরিস্থিতি অপরিবর্তিত থাকলে আগের নির্দেশনাই জারি থাকবে৷ আর মাত্র ১০ দিন পরেই (২৫ অথবা ২৬ এপ্রিল) শুরু হবে মুসলমানদের পবিত্র রমজান মাস৷ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে গত ৬ এপ্রিল ঘরে নামাজ আদায় করার নির্দেশনা জারি করে সরকার৷

সেই নির্দেশনা এখনো জারি থাকায় তারাবির নামাজের ক্ষেত্রেও তা প্রযোজ্য হওয়ার কথা৷ কিন্তু পরিস্থিতি অনুযায়ী তা পরিবর্তনও হতে পারে৷ এখনো এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার সময় হয়নি৷ যদি কোন পরিবর্তন করতে হয় সে সিদ্ধান্ত পরিস্থিতি বিবেচনা করে শেষ মুহূর্তে নেয়া হবে, বলেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক আনিস মাহমুদ৷

তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে যদি সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করতে হয়, সেটা কেমন হবে সে বিষয়ে আলাপ আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে৷

এখানে সংশ্লিষ্ট সবার মতামতের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে, টেলিফোনে জানান তিনি৷ এ খবর দিয়েছে ডয়চে ভেলে। সিদ্ধান্ত পরিবর্তিত হলে তার ধরন কেমন হতে পারে সে নিয়ে এরই মধ্যে কেউ কেউ প্রস্তাব দিচ্ছেন বলে ইসলামিক ফাউন্ডেশন সূত্রে জানা গেছে৷

এদিকে, ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সৌদি আরবের সিদ্ধান্তকেই অনুসরণ করা হতে পারে৷ এদিকে, সৌদি আরব করোনা পরিস্থিতির অবসান না হওয়া পর্যন্ত মসজিদে নামাজ আদায় বন্ধ ঘোষণা করেছে৷

গত শনিবার দেশটির ধর্মমন্ত্রীর বরাত দিয়ে জানানো হয়, তারাবির নামাজ ঘরেই আদায় করতে হবে৷ বাংলাদেশে আড়াই লাখের বেশি মসজিদ রয়েছে৷ স্থানীয় গণমাধ্যমের হিসেবে, এদের বেশিরভাগেই খতম তারাবি পড়ানো হয়৷ তবে এলাকাভিত্তিক কিছুসংখ্যক মসজিদ রয়েছে যেখানে সুরা তারাবি পড়ানো হয়৷ সুত্র: বিডি২৪লাইভ

ফেসবুকে লাইক দিন