ভাস্কর্য ইস্যুতে আলেমদের সঙ্গে ঐকমত্যে পৌঁছানো সম্ভব: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ইমান২৪.কম: আলাপ আলোচনার মাধ্যমে ভাস্কর্য ইস্যুতে আলেমদের সঙ্গে ঐকমত্যে পৌঁছানো সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। আজ মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আলেমদের সঙ্গে আলোচনা শুরু হয়েছে। আলোচনা চলবে। আলোচনার মাধ্যমে আমরা ঐকমত্যে আসতে পারবে ইনশা আল্লাহ।’ তিনি বলেন, ‘শীর্ষস্থানীয় আলেমদের সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। গত ৫ ডিসেম্বর আলেমরা আলোচনা করে প্রধানমন্ত্রী বরাবর চিঠি দেন।

সেসব বিষয়েও আলোচনা হয়েছে। আলেমরাও ধারণ করেন সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধুকে। আলোচনা যে শুরু হয়েছে তা চলবে। আলাপ শুরু হয়েছে, এ আলাপ চলবে।’ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমরা মনে করি, একটা সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। কেউ যেন ভাঙচুর বা আইনশৃঙ্খলা নষ্ট না করে, সে বিষয়ে তারা আমাদের সঙ্গে একমত হয়েছেন।

ফেসবুকের অপপ্রচার বন্ধে আমাদের সজাগ হতে বলেছেন। তারা (আলেমরা) বলেছেন, কোনো রকম আন্দোলন তারা করবেন না। তারা পাঁচটি প্রস্তাব আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে শেষ করতে চান। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ভাস্কর্যের বিষয়ে আলেম-ওলামাদের সঙ্গে আলোচনা পাঁচ দফা প্রস্তাব অনুযায়ী আলোচনা চলছে।

তারা ভাস্কর্যের বিপরীতে মিনার স্থাপনের প্রস্তাব দিয়েছেন। আলেমরা বঙ্গবন্ধুর নামে মিনার স্থাপনের প্রস্তাব করছেন। কী করা হবে, এসব নিয়ে আলোচনা চলছে। এখন পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। ভাস্কর্য সরানো হবে কি না বা নির্মাণকাজ বন্ধ রাখা হবে কি না জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ বিষয় নিয়েও আলোচনা চলছে।

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে তো পূজা করা হয় না। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য করা হয়েছে যাতে প্রজন্মের পর প্রজন্ম তাকে স্মরণ করতে পারে। উল্লেখ্য, ভাস্কর্য নির্মাণকে কেন্দ্র করে সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের সঙ্গে গতকাল সোমবার রাতে বৈঠক করেন দেশের শীর্ষস্থানীয় আলেমরা।

রাত সাড়ে নয়টার দিকে তারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ধানমন্ডির বাসায় যান। মন্ত্রীর সঙ্গে তারা প্রায় এক ঘণ্টা আলোচনা করেন। বৈঠকে আলেমদের পক্ষে নেতৃত্ব দেন কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়ার (বেফাক) সভাপতি মাহমুদুল হাসান। ১২ জন আলেম ওই বৈঠকে অংশ নেন।

ফেসবুকে লাইক দিন