ভারতে গরু হত্যার অভিযোগে মুসলিম যুবককে পিটিয়ে হত্যা!

গরু হত্যার অভিযোগে ভারতের মধ্য প্রদেশের সাতনা জেলায় রিয়াজ নামের এক মুসলিম যুবককে হিন্দু গ্রামবাসীরা পিটিয়ে হত্যা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। গুরুতর আহত অবস্থায় আরো একজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সংবাদ মাধ্যম এবিপি আনন্দের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রিয়াজ ও শাকিল নামে দুই যুবক গরুর মাংস নিয়ে যাচ্ছিলেন। তারা আমগড় গ্রামে পৌঁছালে গ্রামের কয়েকজন যুবক তাদের ধরে প্রচণ্ড মারধর করে। নৃশংসভাবে আক্রমনের ফলে শুক্রবার ভোরে রিয়াজ মারা যায়। শাকিলের অবস্থাও আশঙ্কাজনক। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মধ্য প্রদেশের সাতনার পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, এ ঘটনায় ৪-৫ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ঘটনাস্থল থেকে জবাই করা একটি গরুর দেহ ও এক বস্তা গরুর মাংস উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে উক্ত ঘটনায়, ভূক্তভোগী মুসলিমদের বিরুদ্ধে গরু জবাইয়ের মামলা হয়েছে। এমনকি গণপিটুনিতে গুরুতর আহত হয়ে কোমায় চলে যাওয়া যুবকের বিরুদ্ধেও।

পুলিশ জানায়, জবাই করা একটি ষাঁড় ছাড়াও কিছু মাংস জব্দ করা হয়েছে। মধ্যপ্রদেশে গরু জবাইয়ের অভিযোগ প্রমাণ হলে তিন বছরের জেল ও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে। তবে, রাজ্যে গবাদি পশুর পরিমাণ অতিরিক্ত হয়ে যাওয়ায় ২০১২ সালে আইনটি শিথিল হয়।

এর আগে গত জানুয়ারিতেও ভারতের বিহারের মুজফফরপুরে উত্তেজিত হিন্দু জনতা একটি ট্রাকে ভাঙচুর চালায় এবং চালককে মারধর করে। তাদের সন্দেহ ছিল, ওই ট্রাকে গরুর মাংস নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

এমনিভাবে ভারতে উশৃঙ্খল হিন্দু সম্প্রদায় কর্তৃক সংখ্যালগু মুসলমানরা প্রতিনিয়ত হত্যা ও নির্যাতনের শিকার হচ্ছে।

আরও পরুনঃ ভারতে স্ত্রীকে ফেলে শাশুড়িকে নিয়ে পালাল জামাই!

এবার ভারতের ৮৮ স্থানে নামায পড়া নিষিদ্ধ ঘোষণা

চুল-দাড়ি কেটে বাবা আমাকে পূজা করতে বাধ্য করেছিল, তবুও আমি ইসলামে অটল থেকেছি

ফেসবুকে লাইক দিন