ভারতের উত্তরপ্রদেশের রাস্তায় নামাজ নিষিদ্ধ

ইমান২৪.কম: ভারতের উত্তরপ্রদেশের কোন রাস্তায় আর নামাজ পড়তে পারবেন না ধর্মপ্রাণ মুসলিমরা— এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির উত্তরপ্রদেশের পুলিশ প্রসাশন।

এ ব্যাপারে রাজ্য পুলিশের ডিজি ওম প্রকাশ সিং জানান, ‘ইতিমধ্যেই রাজ্যের সমস্ত জেলা পুলিশ সুপার ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশিকা পাঠিয়ে বলা হয়েছে যে রাস্তা আটকে কোথাও যেন নামাজ আদায় না হয় তা সুনিশ্চিত করতে।’ ওই পুলিশ কর্মকর্তা আরও জানান, ‘ঈদসহ বিশেষ বিশেষ উৎসবে, যখন নামাজের জন্য বিশাল সংখ্যক মানুষ একত্রিত হন-তখনই জেলা প্রশাসন তাতে অনুমতি দিতে পারে।

কিন্তু প্রতি শুক্রবার জুম্মা বারের নামাজের ক্ষেত্রে তা শিথিল করা হবে না।’ ডিজিপি বলেন, ‘আলিগড় ও মীরাঠে ঠিক একই ধরনের নিষেধাজ্ঞা জারি ছিল কিন্তু এবার গোটা রাজ্যজুড়েই এই বিধি নিষেধ চালু করা হল।’ রাস্তা আটকে নামাজ আদায়ের ফলে যানবাহন চলাচলে বা অন্য কি ধরনের সমস্যা হয়-তা নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনা বাড়াতে মুসলিম ধর্মীয় গুরু ও স্থানীয় মসজিদ প্রশাসন কর্তৃপক্ষের সাথে বৈঠকেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে জেলা প্রশাসনকে।

তবে শুধু মুসলিম সম্প্রদায়ের ক্ষেত্রেই নয়, রাস্তা আটকে বা মানুষের অসুবিধা সৃষ্টি করে অন্য কোন ধর্মের মানুষেরাও যাতে কোন ধরনের উৎসব বা ধর্মীয় অনুষ্ঠান আয়োজনের ক্ষেত্রেও একই বিধিনিষেধ বলবৎ থাকবে। যোগী সরকারের এমন সিদ্ধান্তে ক্ষুব্দ প্রতিক্রিয়া জানান অল-ইন্ডিয়া মুসলিম পারসনাল ল বোর্ড (এআইএমপিএলবি) মৌলানা খালিদ রশিদ ফারাঙ্গি মাহালি।

তিনি জানান, ‘এ রাজ্যে খুব অল্প সংখ্যক মসজিদ আছে যেখানে মুসলিমরা মসজিদ চত্তরের বাইরে নামাজ পড়েন। অতীতেও আমরা মুসলিমদের কাছে আর্জি জানিয়েছিলাম যে রাস্তা আটকে তারা যেন নামাজ না পড়েন, কারণ এতে অন্যের অসুবিধা হয়। আমরা মানুষকে বলবো তারা যেন অন্য কোন মসজিদে যান কিংবা বাড়ির ছাদে নামাজ পড়েন।’

ফেসবুকে লাইক দিন