বোরকা পরে পূজামণ্ডপে সিজদা! কে এই আলেয়া?

ইমান২৪.কম: লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বোরকা পরে পূজামণ্ডপে ‘সিজদা’ দেওয়ার সময় আলেয়া (৪০) নামে এক নারীকে আটক করে আনসার ও ভিডিপির টহলদল।

পরে তাঁকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। তিনি উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের হারুনের স্ত্রী। শনিবার (২৪ অক্টোবর) রাতে উপজেলার নওদাবাস ইউনিয়নের পশ্চিম নওদাবাস বাবুপাড়া রাধা গোবিন্দ মন্দির থেকে তাঁকে আটক করে আনসার ও ভিডিপি টহলদল।

ওই নারী মাজার ও তরিকার ভক্ত বলে জানায় পুলিশ। হাতীবান্ধা উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক বলেন, উপজেলার নওদাবাস ইউনিয়নের পশ্চিম নওদাবাস বাবুপাড়া রাধা গোবিন্দ মন্দিরে পূজা চলাকালীন ‘সিজদা’ দেওয়া শুরু করে আলেয়া নামের বোরকা পরিহিত ওই নারী।

এমনকি যারা ঢোল-তবলা বাজায়, তাদের সঙ্গে উল্টাপাল্টা আচরণও শুরু করেন তিনি। এ সময় স্থানীয়রা তাকে আটক করে।

পরে পাশে অবস্থানরত আনসার ও ভিডিপি টহলদল খবর পেয়ে মন্দিরে গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করে পুলিশে সোপর্দ করে।

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল আলম জানান, শুনেছি পূজামণ্ডপে বোরকা পরে সিজদা করে ওই নারী। আনসার ও ভিডিপি টহলদল উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছে।

এ ছাড়া শুনেছি ওই নারী মাজার ও তরিকার ভক্ত। পরে ওই নারীকে টংভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের ২ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার ফজলুল হকের জিম্মায় দেওয়া হয় বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার জন্য।

ফেসবুকে লাইক দিন