মোদি বাংলাদেশে আসলে ১৬ কোটি মুসলমান চুপ করে থাকবে না: আল্লামা বাবুনগরী

ইমান২৪.কম: ক্ষমা না চাওয়া পর্যন্ত ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশে আসতে পারবেন না বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

তিনি বলেন, নরেন্দ্র মোদি বাংলাদেশে আসতে পারবেন না। মোদি ইসলাম ধর্মকে ধ্বংস করতে চান। তাই আজ লক্ষাধিক মানুষের সামনে বলে দিতে চাই, যে কোনো কারণবশত যদি মোদি বাংলাদেশে আসার চেষ্টা করেন তাহলে দেশের ১৬ কোটি মুসলমান চুপ করে বসে থাকবে না।

কাপনের কাপড় নিয়ে শাপলা চত্বরে কঠোর আন্দোলন কর্মসূচির ঘোষণা করব। সোমবার (১৫ মার্চ) বিকেলে হেফাজতে ইসলাম দিরাই উপজেলা শাখার উদ্যোগে দিরাই পৌর এলাকার স্টেডিয়াম মাঠে শানে রিসালাত সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন হেফাজতের আমির। আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, যারা ইসলামের বিরোধিতা করেন তারা স্বাধীনতারও বিরোধিতা করেন।

তিনি বলেন, এরা শুধু ইসলামের শত্রু নন, এরা স্বাধীনতারও শত্রু। বক্তব্যে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফর প্রসঙ্গ টেনে হেফাজতে ইসলামের আমির বলেন, ‘ওই কসাই মোদি গুজরাট, আহমেদাবাদে মুসলমানদের কচু আর গাজরের মতো কচুকাটা করেছেন। এমনকি ভারতের অনেক প্রাচীন মসজিদ ভেঙে ফেলেছেন।

মোদি যদি সারা বিশ্বের মুসলমানদের কাছে ক্ষমা না চান তাহলে মোদি কোনো দিনও বাংলাদেশে আসতে পারবেন না।’ তিনি আরও বলেন, ‘বর্তমানে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে ইসলামকে নির্মূল করার জন্য একটি কুচক্রী মহল উঠেপড়ে লেগেছে।

আমরা তাদের বলে দিতে চাই, যারা ইসলামকে ধ্বংস করতে চান, নির্মূল করতে চান তারাই ধ্বংস হয়ে যাবেন।’ সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির নায়েবে আমির আল্লামা নুরুল ইসলাম খান, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব জুনাইদ আল-হাবিব, যুগ্ম-মহাসচিব আল্লামা মামুনুল হক, নাছির উদ্দিন মুনিরসহ হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতারা।

ফেসবুকে লাইক দিন