বাসায় ১৪ হাজার পিস ইয়াবা, এসআই কারাগারে

ইমান২৪.কম: বাসা থেকে ইয়াবা উদ্ধারের মামলায় চট্টগ্রামের বাকলিয়া থানার খন্দকার সাইফ নামে এক সাব ইন্সপেক্টরকে (এসআই) কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। বুধবার চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারোয়ার জাহান তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে সকালে খন্দকার সাইফ আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন জানান।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) কাজী শাহাব উদ্দিন আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘এসআই খন্দকার সাইফ এর বাসা থেকে ১৪ হাজার ১০০ পিস ইয়াবা উদ্ধারের ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় তিনি আজ আদালতে আত্মসমর্পণ করলে আদালত তার জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।’

জানা গেছে, বাকলিয়া থানার এসআই খন্দকার সাইফ ইতোপূর্বে উচ্চ আদালত থেকে জামিনে এসে পলাতক ছিলেন।

প্রসঙ্গত, এসআই খন্দকার সাইফ বাকলিয়া থানার চাকতাই পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ থাকাকালে ইয়াবা ব্যবসার সাথে জড়িয়ে পড়েন বলে অভিযোগ উঠে। ২০১৮ সালের ৩০ জুলাই রাতে র‌্যাবের একটি টিম বাকলিয়া হাফেজনগর এলাকায় তার ভাড়া বাসায় অভিযান চালিয়ে ১৪ হাজার ১০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করে।

এসময় তার বাসা থেকে ইয়াবা বিক্রির নগদ ২ লাখ ৩১ হাজার ৬৩০ টাকা, ৪টি মোবাইল ফোন, ৩টি ট্যাব ও পুলিশের কিছু ইউনিফর্ম উদ্ধার করা হয়। বাসা থেকে নাজিম উদ্দিন মিল্লাত (৩০) নামে খন্দকার সাইফের এক সহযোগীকে আটক করে র‌্যাব।

র‌্যাবের অভিযানের সময় ওই বাসায় ছিলেন না এসআই খন্দকার সাইফ। তখন তিনি থানায় ডিউটিরত ছিলেন। পরে অসুস্থতার কথা বলে থানা থেকে হাসপাতালে যাওয়ার সময় পালিয়ে যান তিনি।

আরও পড়ুন:  কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিল ঐক্যফ্রন্ট

‘ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বৃদ্ধির পেছনে ধর্মহীন শিক্ষা ও অশ্লীল সংস্কৃতি দায়ী’

গত এক মাসে ৫২ টি ধর্ষণ, ২২টি গণধর্ষণ এবং ৫টি ধর্ষণের পর হত্যা

৩৩ বছর ধরে এমপিওভুক্ত, ১৪জন শিক্ষক থাকলেও নেই কোনো ছাত্র

ইজতেমা মাঠের কাজ শুরু, দ্বিধাদ্বন্দ্ব ভুলে ময়দানে শরিক হওয়ার আহ্বান মুরব্বিদের

এখন থেকেপুলিশের বিরুদ্ধেও অভিযোগ করা যাবে সরাসরি, খোলা হয়েছে কমপ্লেইন সেল

ফেসবুকে লাইক দিন