বাবুনগরী, মামুনুল হক ও ফয়জুল করিমের গায়ে হাত দিলে মুসলমানরা বসে থাকবে না

ইমান২৪.কম: আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, মাওলানা মামুনুল হক এবং মুফতী ফয়জুল করিমের গায়ে হাত দেয়া হলে দেশের মুসলমান ও আলেম সমাজ বসে থাকবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের নায়েবে আমীর মাওলানা আবদুর রব ইউসুফী। তিনি বলেন, তাহলে দেশের সকল তৌহিদী জনতাকে নিয়ে ঢাকা চলো কর্মসুচী দিয়ে অবরোধ করা হবে।

বুধবার দুপুরে ডিআরইউ’র অডিটরিয়ামে বাংলাদেশ লেবার পার্টির উদ্যোগে ‍”ইসলামের দৃষ্টিতে ভাষ্কর্য : বর্তমান প্রেক্ষাপট” শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।

আওয়ামী লীগ ভারতের ইন্ধনে মসজিদ নগরী ঢাকাকে ভাস্কর্যের নামে মুর্তির নগরীতে পরিনত করতে চায় মন্তব্য করে বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইরান বলেছেন, ভাস্কর্যের নামে মুর্তি স্থাপন জায়েজ করতে আওয়ামী লীগ ও নাস্তিক-মুরতাদরা ফতোয়াবাজি করছে।

ভাস্কর্যের নামে মুর্তি স্থাপন হিন্দুত্ববাদী ভারতের এজেন্ডা। এটা ১৮ কোটি মুসলমানের দেশ বাংলাদেশ। শাহ জালাল, শাহ আলী, শাহ পরান ও খান জাহানের বাংলাদেশ হিন্দুত্ববাদী গৌর গোবিন্দের উত্তরসুরীদের মুর্তির দেশ হতে পারে না।

আলেমরা টাকা পয়সার বিনিময়ে ভাস্কর্য নিয়ে কথা বলছে মর্মে জাতীয় প্রেসক্লাবে লেবার পার্টি আয়োজিত সমাবেশে ডাঃ জাফরুল্লাহ চৌধুরী দেয়া বক্তব্যে তিব্র নিন্দা জানিয়ে ডাঃ ইরান বলেছেন, আলেম ওলামায়ে কেরামদের কটাক্ষ করে ডাঃ জাফরুল্লাহর বক্তব্য তার ব্যাক্তিগত মতামত।

তাছাড়া তাকে ভাস্কর্য বা মুর্তি নিয়ে কথা বলতে তাকে দাওয়াত দেয়া হয়নি। তিনি ধান বানতে শিবের গীত গেয়েছেন। লেবার পার্টি মনে করে ভাস্কর্য আর মুর্তি মুদ্রার এপিঠ ওপিঠ মাত্র। আলেম ওলামা তৌহিদী জনতার আকাংখা বিরোধী সকল চক্রান্ত মোকাবেলায় আমরা ঐক্যবদ্ধ ভাবে মোকাবেলা করব ইনশাল্লাহ। কোন মুসলমান মুর্তি বা ভাস্কর্যের পক্ষে কথা বলতে পারে না।

ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের নায়েবে আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, খেলাফত মজলিসের যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী, সিদ্দিকী দরবার শরীফের পীর সাহেব মাওলানা সালেহ সিদ্দিকী,

এনডিপি চেয়ারম্যান কারী আবু তাহের, ইসলামী ঐক্য আন্দোলনের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আবু বকর সিদ্দিক, লেবার পার্টির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার ফরিদ উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক হুমাউন কবীর, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা তরিকুল ইসলাম সাদী, যুবমিশন সদস্য সচিব সৈকত চৌধুরী, ছাত্রমিশন সভাপতি সৈয়দ মোঃ মিলন ও সাধারন সম্পাদক মোঃ শরিফুল ইসলাম প্রমুখ।

সভায় প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ লেবার পাটির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব এডভোকেট ফারুক রহমান।

ফেসবুকে লাইক দিন