বাক স্বাধীনতার নামে মুহাম্মদ (সঃ)-কে অবমাননা করা যাবে না : ইইউ আদালত

ইমান২৪.কম: পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ মানব, মহান আল্লাহ তায়ালার প্রেরিত রাসুল, মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বাক স্বাধীনতার নামে অবমাননা করা যাবে না।

বৃহস্পতিবার (২৫ অক্টোবর) এমন এক ঐতিহাসিক রুল জারি করেছে ইউরোপিয়ান কোর্ট অব হিউম্যান রাইটস (ইসিএইচআর)।

এই রুলে বলে হয়েছে, ‘কটূক্তি করার মানেই হচ্ছে, উদ্দেশ্যমূলকভাবে বিতর্ক ছড়ানো। সঙ্গে তার বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ছড়ানো এবং সমাজের শান্তিপূর্ণ পরিবেশকে ঝুঁকিতে ফেলে দেয়া।’

২০০৯ সালে ‘বেসিক ইনফরমেশন অন ইসলাম’ শীর্ষক দুটি সেমিনারে মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের বিয়ে নিয়ে কটূক্তি করেছিলেন মিসেস ‘এস’ নামে অস্ট্রীয় এক নাগরিক।

বিষয়টি আদালতে গড়ালে অস্ট্রিয়ার নিম্ন আদালতের সাত বিচারক আদেশ দেন, মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কোনো অবমাননা করা যাবে না। সেই সিদ্ধান্তের সমর্থন জানিয়ে বৃহস্পতিবার এই রুল দিলেন ইসিএইচআর।

পর্দাহীনতাই নারী নির্যাতনের মূল কারণ : আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী

ভিয়েনা রিজিওনাল ক্রিমিনাল কোর্ট এক বিবৃতিতে জানায়, সেই সেমিনারে মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের ‘পেডোফিলিক প্রবণতা’ ছিল বলে বক্তব্য দেয়া হয়। ধর্মীয় আদর্শকে অবমাননার অভিযোগে ২০১১ সালে ফেব্রুয়ারিতে ওই নারীকে অভিযুক্ত করা হয়।

অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে প্রায় সাড়ে ৫শ’ ডলার অর্থদণ্ড দেয়া হয়। ওই নারী এর বিরুদ্ধে আপিল করলেও সুপ্রিম কোর্ট তা বাতিল করে দেন।

এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে অস্ট্রিয়ার আদালত সিদ্ধান্ত দেন, ইসলামের নবীকে নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি করা এবং উদ্দেশ্যমূলক কোনো বক্তব্য দেয়া তার বিরুদ্ধে আক্রমণ হিসেবে গণ্য করা হবে। এতে ধর্মীয় শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিনষ্ট হতে পারে। এ ধরনের কোনো অভিযোগ পেলে আদালত পদক্ষেপ নেবে বলেও জানানো হয়।

আরও পড়ুন: 

বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা মানুষ এখন বাংলাদেশের জিন্নাত; জাতীয় সংসদে জিন্নাতকে নিয়ে হৈ চৈ

দেশে গণতন্ত্রের নামমাত্র নেই : মান্না

ঐক্যফ্রন্টে সব শয়তান একত্রিত হয়েছে : কাদের

সরকারের মাথা খারাপ হয়ে গেছে, ডাক্তার দেখাতে হবে : ড. কামাল হোসেন

সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্বাচন করার কথা বর্তমান সংবিধানেই বলা আছে: ড. শাহদীন মালিক

ফেসবুকে লাইক দিন