প্রজ্ঞাপন জারি না হওয়া পর্যন্ত কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীরা মাঠে থাকার ঘোসনা

ইমান২৪.কম: সরকারি চাকরির নবম থেকে ত্রয়োদশ গ্রেড পর্যন্ত মেধার ভিত্তিতে নিয়োগের সুপারিশকে ইতিবাচক বললেও আপাতত আন্দোলন থেকে সরছেন না বলে জানিয়েছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা।

পাশাপাশি পূর্বঘোষিত কর্মসূচি আগামীকাল মঙ্গলবার বিক্ষোভ মিছিল চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণাও দেন তারা।

আজ ১৭ সেপ্টেম্বর সোমবার বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই প্রতিক্রিয়া জানান কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা।

কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের প্ল্যাটফর্ম বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন বলেন, আজ মন্ত্রিপরিষদ সচিব ৯ম গ্রেড থেকে ১৩তম গ্রেড পর্যন্ত কোটা বাতিলের যে প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন আমরা তা ইতিবাচক মনে করছি। পাশাপাশি আমরা এটাও দাবি জানাচ্ছি, এর বাইরে যে গ্রেডগুলো রয়েছে, সেখানে কোটার যৌক্তিক সংস্কার যেন করা হয়।

যুগ্ম-আহ্বায়ক ফারুক হাসান বলেন, আমরা স্পষ্ট করে বলে দিয়েছি, যেদিন আমাদের তিন দফা দাবি বাস্তবায়ন হবে, সেদিনই আমরা আন্দোলন থেকে সরে যাব।

আমাদের ৩ দফা হলোঃ

১. ভিত্তিহীন, মিথ্যা ও হয়রানিমূলক সব মামলা প্রত্যাহার করা;
২. হামলাকারীদের উপযুক্ত শাস্তি নিশ্চিত করা এবং
৫. ৫ দফার আলোকে কোটা পদ্ধতির যৌক্তিক সংস্কার করে প্রজ্ঞাপন দেওয়া।

এসময় তিনি প্রজ্ঞাপনের দাবিতে সারাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজগুলোতে বিক্ষোভ মিছিলের ঘোষণা দেন।

প্রসঙ্গত, আজ সোমবার দুপুরে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম নেতৃত্বাধীন উচ্চ পর্যায়ের কমিটি কোটা সংস্কার নিয়ে তাদের প্রতিবেদন প্রধানমন্ত্রীর কাছে তুলে দেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, সরকারি চাকরির নবম থেকে ত্রয়োদশ গ্রেড পর্যন্ত, অর্থাৎ প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির পদে কোনো ধরনের কোটা না রেখে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগের নিয়ম চালু করতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সুপারিশ করেছে।

আরও পড়ুনঃ কুলাউড়ায় সরকারি বিদ্যালয়ে ইসলাম শিক্ষা পড়ান হিন্দু শিক্ষক

ভারতকে চট্টগ্রাম-মোংলা বন্দর ব্যবহারের অনুমতি; মন্ত্রিসভায় খসড়া অনুমোদন

ফেসবুকে লাইক দিন