পুনরায় ঈমান না আনলে জিয়াউল হাসান ‘মুরতাদ’: জাতীয় তাফসীর পরিষদ

ইমান২৪.কম: দুনিয়াদার মৌলভী জিয়াউল হাসান পবিত্র ক্বাবা শরীফ ও হাজরে আসওয়াদকে মূর্তি সাব্যস্ত করে থেকে খারিজ হয়ে গেছে, তাকে পুনরায় ঈমান আনতে হবে,

অন্যথায় সে মুরতাদ হয়ে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় তাফসীর পরিষদের চেয়ারম্যান মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মহাসচিব হাফেজ মাওলানা মাকসুদুর রহমান, যুগ্ম মহাসচিব প্রিন্সিপাল মুফতী বাকিবিল্লাহ।

বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, জ্ঞানপাপি ও মুর্খ জিয়াউল হাসান ইসলামবিরোধী শক্তির ক্রীড়নকে পরিণত হয়ে ইসলামের ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে সাধারণ মানুষকে ঈমানহারা করে যাচ্ছে।

তার ভুল ফতোয়া দেশের মুসলমানের হৃদয়ে চরম আঘাত হেনেছে।

এই জাহেল মৌলভী জিয়াউল হাসানকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।

ওলামায়ে কেরামগণ বলেন, যে ব্যক্তি ভাস্কর্য ও মূর্তিকে পার্থক্য করে ভুল ব্যাখ্যা দেয়, সে কী করে আলেম হতে পারে?

এধরণের বিপথগামী ওলামায়ে ‘ছু’-এর ফতোয়া মেনে ভাস্কর্য নির্মাণ করলে সরকার ইসলামবিদ্বেষী হিসেবে চিহ্নিত হবে।

দেশের বৃহত্তর জনগোষ্ঠীকে পাশ কাটিয়ে ভন্ড ও জাহেলদের ফতোয়ায় ভাস্কর্য নির্মাণ থেকে বিরত থাকতে এবং আল্লাহর ৯৯নাম খচিত স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণের দাবি জানান ওলামাগণ।

ফেসবুকে লাইক দিন