‘পিস্তল ও গুলি’ ধরা পড়া বিষয়ে ইলিয়াস কাঞ্চন মিথ্যা বলেছেন: বিমান মন্ত্রণালয়

ইমান২৪.কম: রাজধানীর হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালের স্ক্যানারে ‘পিস্তল ও গুলি’ ধরা পড়া সম্পর্কে চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের অভিযোগ প্রত্যাখান করেছে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়।

আজ বৃহস্পতিবার মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে অভিযোগ প্রসঙ্গে বলা হয়, ‘ইলিয়াস কাঞ্চন নিজের ভাবমূর্তি রক্ষার্থে তার ব্যাগে থাকা লাইসেন্স করা পিস্তল ও গুলি সম্পর্কে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে অন্যায়ভাবে একের পর এক অসত্য কথা বলছেন।’

এতে বলা হয়,‘ প্রকৃতপক্ষে গত ৫ মার্চ হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালের এন্টি হাইজাকিং পয়েন্টে বিমান যাত্রীদের মালামাল স্ক্যানিং করার সময় ইলিয়াস কাঞ্চনের ব্যাগে রাখা পিস্তল ও গুলি স্ক্যানিং মেশিনে সনাক্ত হয়।’

বিমানবন্দরের কর্মকর্তরা এ বিষয়ে তার কাছে জানতে চাইলে তিনি (ইলিয়াস কাঞ্চন) ভুল স্বীকার করেন। ওই সময় নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা ইলিয়াস কাঞ্চনকে বিমানবন্দরের যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে পিস্তলটি বহন করার অনুরোধ জানালে তিনি সেখান থেকে ফেরত যান।

পরবর্তীতে চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন যথাযথ প্রক্রিয়া মেনেই বিমানে চট্টগ্রাম যান বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।বাসস

এদিকে অস্ত্র নিয়ে তিনি বিমানবন্দরের প্রথম ধাপের নিরাপত্তা তল্লাশি পেরিয়ে যাওয়ার ঘটনায় একজনকে বরখাস্ত করেছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ-বেবিচক।

ফজলার রহমান নামের ওই ব্যক্তি মঙ্গলবার দুপুরে ওই ঘটনার সময় সেখানে নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন বলে বেবিচকের জনসংযোগ কর্মকর্তা এ কে এম রেজাউল করিম জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, চট্টগ্রামে যাওয়ার জন্য মঙ্গলবার দুপুরে বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে আসেন নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা) এর চেয়ারম্যান ও চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন। তখন তার সঙ্গে অস্ত্র ছিল।

শাহজাল বিমানবন্দরে ফ্লাইটে ওঠার আগে অন্তত দুই দফায় নিরাপত্তা তল্লাশি পার হতে হয়। বিমানবন্দরে ঢুকতেই দেহ তল্লাশির পাশাপাশি সঙ্গের ব্যাগ-লাগেজ স্ক্যানারে পরীক্ষা করার নিয়ম।

সন্দেহজনক কিছু ধরা পড়লে সাথে সাথে ব্যবস্থা নেন নিরাপত্তা কর্মীরা। সেখান থেকে ওই যাত্রীর ইমিগ্রেশন পার হওয়ার সুযোগ থাকে না।

কিন্তু ইলিয়াস কাঞ্চন মঙ্গলবার তার লাইসেন্স করা ৯ এমএম পিস্তল ও ১০ রাউন্ড গুলি ব্যাগে নিয়েই বিমানবন্দরের প্রথম নিরাপত্তা তল্লাশি পেরিয়ে যান। সেখানে স্ক্যানে তার অস্ত্র ধরা পড়েনি। দ্বিতীয় ধাপের তল্লাশির সময় তিনি সঙ্গে অস্ত্র থাকার কথা নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের জানান।

কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, প্রথম স্ক্যানার পার হওয়ার সময় সঙ্গে পিস্তল থাকার কথা জানানোর বিষয়টি তার মনে ছিল না। পরের ধাপে তিনি দায়িত্বরত কর্মকর্তাদের বিষয়টি জানান।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম হয়ে দুবাইগামী একটি ফ্লাইটে ‘অস্ত্রের’ মুখে পাইলট-ক্রুদেরকে জিম্মি করে বিমান ছিনতাইয়ের চেষ্টা করেন এক যুবক। ওই ফ্লাইট চট্টগ্রামে অবতরণের পর ইমার্জেন্সি গেট নিয়ে যাত্রীদের নামিয়ে দেওয়ার পর কমান্ডো অভিযানে নিহত হন তিনি। পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়, সেটি ছিল ‘খেলনা পিস্তল’।

ঢাকা বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ফাঁকি দিয়ে পলাশ নামের ওই যুবক কীভাবে বিমানে উঠলেন, তা নিয়ে আলোচনার মধ্যে ইলিয়াস কাঞ্চনের এই ঘটনা নতুন আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

ইলিয়াস কাঞ্চনের ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে বিমানবন্দরের একজন কর্মকর্তা বলেন, ‘উনি (ইলিয়াস কাঞ্চন) একজন দায়িত্বশীল মানুষ। একজন সেলিব্রেটি। তাই হয়ত তাকে তল্লাশিই করা হয়নি।’

তবে বেবিচকের জনসংযোগ কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলছেন, ‘বিমানবন্দরের স্ক্যানারেই ইলিয়াস কাঞ্চনের অস্ত্র থাকার বিষয়টি ধরা পড়ে। সেখানে নিরাপত্তা ব্যবস্থায় কোনো ধরনের সমস্যা থাকার প্রশ্নই আসে না।’

আরও পড়ুন: মেননের বক্তব্যের প্রতিবাদে শুক্রবার হেফাজতের বিক্ষোভের ডাক

সত্য কথা হলো, যে রকম সুষ্ঠু নির্বাচন চাই সেরকম করতে পারিনি: সিইসি

ভারতীয় পাইলট অভিনন্দনের ছেলেকে লেখা পাকিস্তান সেনাবাহিনীর মর্মস্পর্শী চিঠি

কাশ্মীরিদের ইচ্ছে মেনে যিনি কাশ্মীর সমস্যার সমাধান করতে পারবেন তিনিই নোবেল পাওয়ার যোগ্য : ইমরান খান

হিরো আলম গ্রেফতার: থানায় যা বললেন তিনি, দেখুন এক্সক্লুসিভ ভিডিওতে

ফেসবুকে লাইক দিন