পারমাণবিক অস্ত্রে এগিয়ে আছে পাকিস্তান, ভারতের বেশি সেনা

ইমান২৪.কম: সীমান্ত রেখা অতিক্রম করে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে জঙ্গি ঘাঁটি লক্ষ্য করে বোমা হামলা করেছে ভারতীয় বিমানবাহিনী। এই হামলায় ‘প্রায় ৩০০ সন্ত্রাসী’ নিহত হয়েছে বলে দাবি ভারতের। যদিও পাকিস্তান ভারতের এই দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে। তবে এ হামলাকে কেন্দ্র করে কঠোর জবাব দিয়েছে ইসলামাবাদ। দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, ভারতকে যথা সময়ে ও যথা স্থানে এর জবাব দেয়া হবে।

এ অবস্থায় দুই দেশের মাঝে দেখা দিয়েছে চরম উত্তেজনা। এদিকে দুটো দেশের হাতেই রয়েছে পারমাণবিক অস্ত্র। এই অস্ত্রের দিক দিয়ে পাকিস্তান এগিয়ে রয়েছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংগঠন আর্মস কন্ট্রোল এসোসিয়েশন। তাদের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে ভারতের হাতে ১৩৫টি এবং পাকিস্তানের হাতে ১৪৫টি পারমাণবিক বোমা রয়েছে।

এছারা প্রতিবেশী এই দুই দেশের কার কেমন সামরিক শক্তি রয়েছে সেটা নিয়েও আলোচনা হচ্ছে। গ্লোবাল ফায়ার পাওয়ারের ২০১৮ সালের প্রতিবেদন অনুযায়ী, সামরিক শক্তির দিক থেকে বিশ্বের ১৩৬টি দেশের মধ্যে ভারতের অবস্থান চতুর্থ। আর পাকিস্তানের অবস্থান ১৭তম। তবে সামরিক শক্তির দিক দিয়ে ভারত এগিয়ে থাকলেও কিছু কিছু ক্ষেত্রে এগিয়ে আছে পাকিস্তান।

ভারতের সেনাবাহিনী

সেনা সদস্য: পাকিস্তানের সৈন্য সংখ্যা ৯ লাখ ১৯ হাজার হলেও ভারতের সেনাবাহিনীর সদস্য সংখ্যা কয়েকগুণ বেশি, তাদের রয়েছে ৪২ লাখ সেনা সদস্য।

যুদ্ধ বিমানের সংখ্যা: ভারতের মোট সামরিক বিমান রয়েছে ২ হাজার ১৮৫টি। আর পাকিস্তানের রয়েছে ১ হাজার ২৮১টি বিমান। ভারতের যুদ্ধবিমান রয়েছে ৫৯০টি আর পাকিস্তানের ৩২০টি। সেই সঙ্গে ভারতের আক্রমণকারী বা অ্যাটাকিং বিমান রয়েছে ৮০৪টি, অন্যদিকে পাকিস্তানের আছে ৪১০টি।

ভারতের কাছে সামরিক হেলিকপ্টার রয়েছে ৭২০টি। পাকিস্তানের কাছে রয়েছে ৩২৮টি। তবে পাকিস্তানের আক্রমণকারী বা অ্যাটাকিং হেলিকপ্টার রয়েছে ৪৯টি, যেখানে ভারতের আছে মাত্র ১৫টি।

ট্যাংক: পাকিস্তানের মোট ট্যাংকের সংখ্যা ২ হাজার ১৮২টি হলেও ভারতের রয়েছে এর প্রায় দ্বিগুণ ৪ হাজার ৪২৬টি।

সাঁজোয়া যান: এরকম বাহন ভারতের রয়েছে ৩,১৪৭টি, আর পাকিস্তানের আছে ২,৬০৪টি।

আর্টিলারি: গ্লোবাল ফায়ার পাওয়ারের তালিকায় স্বয়ংক্রিয় অস্ত্রের দিক দিয়ে ভারতের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে পাকিস্তান। ভারতের ১৯০টি এ ধরণের অস্ত্র থাকলেও পাকিস্তানের রয়েছে ৩০৭টি। তবে টেনে নিয়ে যাওয়া যায়, এমন আর্টিলারি ভারতের আছে ৪,১৫৮টি। আর পাকিস্তানের আছে মাত্র ১,২৪০টি। রকেট প্রজেক্টর ভারতের কাছে আছে ২৬৬টি, পাকিস্তানের আছে ১৪৪টি।

পাকিস্তানের মিসাইল

নৌ শক্তি: ভারতের নৌবাহিনীর কাছে মোট যুদ্ধযান রয়েছে ২৯৫টি, আর পাকিস্তানের আছে ১৯৭টি। ভারতের কাছে ১৬টি সাবমেরিন বা ডুবোজাহাজ থাকলেও পাকিস্তানের আছে পাঁচটি। ফ্রিগেট রয়েছে ভারতের ১৪টি, আর পাকিস্তানের ১০টি।

যুদ্ধজাহাজ: এদিকে ভারতের ১১টি ডেস্ট্রয়ার থাকলেও পাকিস্তানের এরকম কোন যুদ্ধজাহাজ নেই। তেমনি ভারতের ২২টি কর্ভেট (ছোট আকারের যুদ্ধজাহাজ) থাকলেও পাকিস্তানের এমন কোন নৌযান নেই। ভারতের প্যাট্রোল নৌযান রয়েছে ১৩৯টি, আর পাকিস্তানের আছে ১১টি। মাইন যুদ্ধজাহাজ রয়েছে ভারতের ৪টি, পাকিস্তানের ৩টি।

উল্লেখ্য, এই তালিকা তৈরি করা হয়েছে ৫৫টির বেশি উপাদান বিবেচনায় নিয়ে। ভৌগলিক, অর্থনৈতিক, স্থানীয় শিল্প, প্রাকৃতিক সম্পদ, কর্মক্ষমতা এবং প্রথম, দ্বিতীয় বা তৃতীয় বিশ্বের দেশের মর্যাদার বিষয়গুলো এখানে বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে। সূত্র: বিবিসি

আরও পড়ুন:  সীমান্তে লাগাতার গোলাবর্ষণ করছে পাকিস্তান

পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর ভারি মর্টার শেলে দুই ভারতীয় নিহত

ভারতের বিমান হামলা: সাথে সাথে পাল্টা জবাব দিলো পাকিস্থান

ভারতকে যথা সময়ে ও যথা স্থানে এর জবাব দেয়া হবে: পাকিস্তানের হুমকি

৫০টি পারমাণবিক বোমা একসঙ্গে মারতে হবে: পারভেজ মোশাররফ

কাশ্মীরে স্বাধীনতাকামীদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে ভারতীয় ডেপুটি পুলিশ সুপার নিহত, মেজরসহ আহত ২

ফেসবুকে লাইক দিন