পাকিস্তানের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের বৈঠকে ডেকেছেন ইমরান খান

ইমান২৪.কম: পাকিস্তান ভূখণ্ডে ভারতীয় যুদ্ধবিমানের হামলার পরিপ্রেক্ষিতে জরুরি বৈঠক ডেকেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। সীমান্ত পরিস্থিতি পর্যালোচনা করতে মঙ্গলবার ( ২৬ ফেব্রুয়ারি) এ বৈঠক ডাকেন তিনি। দেশটির প্রভাবশালী ইংরেজি দৈনিক ‘ডন’ এ খবর প্রকাশ করেছে। খবরে বলা হয়, ভারতীয় বিমানের সীমান্তের নিয়ন্ত্রণ রেখা লঙ্ঘনের ঘটনায় পাকিস্তানের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন ইমরান।

সংবাদমাধ্যমটি জানায়, বৈঠকের ব্যাপারে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মোহাম্মদ কুরাইশি বলেন, ‘দেশের মানুষের দুশ্চিন্তার কিছু নেই। আমরা সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সফল লড়াই করেছি। আমরা শান্তিকামী জাতি এবং সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সচেতন রয়েছি।’ এর আগে ভারত দাবি করে, সোমবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ৩টার দিকে নিয়ন্ত্রণরেখা পার হয়ে ভারতীয় বিমাবাহিনীর যুদ্ধবিমান পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত আজাদ কাশ্মীরে হামলা চালায়।

এতে জইশ-এ মোহাম্মদের বড় সংখ্যক সদস্য নিহত হয়েছেন। মিরাজ ২০০০ মডেলের যুদ্ধবিমান থেকে সেখানে ১ হাজার কেজি বোমা ফেলা হয়েছে। পাকিস্তান আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) ডিজি মেজর জেনারেল আসিফ গফুর বলেছেন, সীমান্তরেখা লঙ্ঘন করেছে ভারতীয় যুদ্ধবিমান।

তবে, তাৎক্ষণিকভাবে জবাব দেয়ায় তারা পালিয়ে যায়। এতে হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। প্রসঙ্গত, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামায় পুলিশ কনভয়ে আত্মঘাতী হামলায় ৪০ জওয়ান নিহত হন। পরে জইশ-এ মোহাম্মদ এ হামলার দায় স্বীকার করে। এ হামলার জন্য পাকিস্তানকে দায়ী করে আসছে ভারত।

যদিও পাকিস্তান তা নাকচ করেছে। পুলওয়ামা হামলার প্রেক্ষাপটে পরমাণু শক্তিধর দু’দেশের দীর্ঘ বৈরি সম্পর্কের আরও অবনতি হয়। সীমান্তে উভয় দেশ সমরাস্ত্র ও সেনা মোতায়েন করে যুদ্ধের হুমকি দিতে থাকে। এমন পরিস্থিতিতে সোমবার রাতে হামলার দাবি করল নয়াদিল্লি।

আরও পড়ুন: কাদিয়ানীদের রাষ্ট্রীয়ভাবে অমুসলিম ঘোষণার দাবিতে 

বাংলাদেশের বিমান ছিনতাইয়ের চেষ্টা : বিমানের ডানা বেয়ে নেমে

ফেসবুকে লাইক দিন