আল্লামা শফীর মৃত্যুকে ইস্যু করে মামলা: নিন্দা জানিয়েছেন দেশের শীর্ষ আলেমরা

ইমান২৪.কম: আল্লামা শাহ আহমদ শফীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার অভিযোগ এনে হেফাজত নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন দেশের শীর্ষ ২৮ উলামা-মাশায়েখ।

বিবৃতিতে তারা বলেন, শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী রাহ.কে একটি কুচক্রি মহল কবরের জগতেও অশান্তি সৃষ্টি ও কলংকিত করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে । যারা ২০১৩ থেকে ২০২০ সালে হযরতের স্বাভাবিক ইন্তেকাল পর্যন্ত কখনো ক্ষমতাসীনদের বিপক্ষে ক্ষমতা দখলের অযৌক্তিক হুংকার আর অপরিণামদর্শী বক্তব্যের মাধ্যমে, কখনো অদৃশ্য শক্তির চাটুকারিতার ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়ে, আবার কখনো হালুয়া রুটি হালাল করার জন্য দেশি বিদেশি গোয়েন্দা সংস্থার চর হয়ে দুনিয়াবী স্বার্থ হাসিলের মতলবে কওমী হালকার ঐতিহ্য বিনষ্টে ন্যাক্কারজনক ভূমিকা রেখে আল্লামা শাহ আহমদ শফী (রাহ.)এর আকাশচুম্বি গ্রহণযোগ্যতাকে জাতির সামনে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। শুধু তাই নয়, এই গুটি কয়েক দুশ্চরিত্র কুলাঙ্গার হঠাৎ করে কীভাবে গাড়ী বাড়ী ও শিল্পপ্রতিষ্ঠানের কর্তা হয়ে গেলেন জাতি তা জানতে চায়।

আজ (২০ ডিসেম্বর) রবিবার দেশের শীর্ষ ২১ ওলামা-মাশায়েখ এক যৌথ বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

তারা বলেন, এই জনবিচ্ছিন্ন লেবাসধারী মতলবাজ চক্রটি এবার হযরত আল্লামা শাহ আহমদ শফী (রাহ.)এর স্বাভাবিক ইন্তেকাল যা তার বড় ছেলে পরিবারের পক্ষ থেকে মিডিয়ার সামনে পরিস্কারভাবে জাতিকে জানান দিয়েছেন, এবং মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদ্রাসার সকল আসাতেজায়ে কেরাম এ বিষয়ে সুস্পষ্ট বক্তব্যের মাধ্যমে দেশবাসীর সামনে হযরতের স্বাভাবিক মৃত্যুর স্বাক্ষ্য দিয়ে তাঁর ইজ্জত সুমন্নত রেখেছেন।

তারা বলেন, শুধু তাই নয়, হেফাজতে ইসলামের নিয়মতান্ত্রিক পদ্ধতিতে জাতীয় প্রতিনিধির উপস্থিতিতে হেফাজতে ইসলামের যে জাতীয় নির্বাহী কমিটি গঠিত হয়েছে তার ব্যাপারেও কুচক্রী মহলের আপত্তি, যা সচেতন জাতি ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করছে।

তারা আরো বলেন, দেশে একটি অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির জন্য এবং অদৃশ্য শক্তির এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য মাওলানা মামামুল হক সহ দেশের শীর্ষ ও জননন্দিত আলেম-উলামার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের ও আমীরে হেফাজত আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী সহ শীর্ষ মুরব্বীদের শানে বেয়াদবী মূলক বক্তব্য ও আচরণ করে যাচ্ছে। আমরা তার তীব্র প্রতিবাদ ও ধিক্কার জানাচ্ছি। অবিলম্বে এই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে এবং দেশে শান্তি শৃঙ্খলা বিনষ্ট কারী এই চিহ্নিত দালাল ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করে বিচারের মুখোমুখি করার জোর দাবি জানাচ্ছি। অন্যথায় হেফাজতে ইসলাম জেগে উঠলে ষড়যন্ত্রকারীরা পালাবার জায়গা খুঁজে পাবে না।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন, আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী, আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, আল্লামা মুফতি আব্দুস সালাম চাটগামী, আল্লামা নূরুল ইসলাম, আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী, মাওলানা শায়েখ জিয়া উদ্দিীন, মাওলানা আব্দুল হামিদ (মধুপুর পীর), মাওলানা মুহাম্মদ ইসহাক, মাওলানা আবুল কালাম, মাওলানা নূরুল ইসলাম আদীব, মাওলানা ইসমাঈল নূরপুরী, মাওলানা আবদুর রব ইউসুফী, মাওলানা আরশাদ রহমানী, মাওলানা এডভোকেট আবদুর রাকীব, মাওলানা আবদুর রহমান হাফেজ্জী, মাওলানা মাহফুজুল হক, মাওলানা নূরুল ইসলাম ওলীপুরী, মাওলানা জুনায়েদ আল হাবীব, মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ মোমেনশাহী, মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক, মাওলানা আবদুল আউয়াল, মাওলানা ফয়জুল্লাহ সন্দ্বীপী প্রমুখ।

ফেসবুকে লাইক দিন