নাইকির জুতায় আবারও ‘আল্লাহ’ লেখা!

ইমান২৪.কম: সময়টা তখন ১৯৯৭ সাল। এয়ার বেকিন নামে হাজার হাজার স্নিকার বাজারে ছেড়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের ক্রীড়া সরঞ্জাম প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান নাইকি। এ জুতা বাজারে বের হতে না হতেই মুসলিমদের ধর্মানুভূতিতে আঘাত হানে। কারণ জুতায় ‘এয়ার’ শব্দটি এমনভাবে লেখা হয়েছিল তা হুবহু দেখতে আরবিতে লেখা ‘আল্লাহ’ শব্দের মতো।

ওই সময় প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে যুক্তি হিসেবে জানানো হয়, অত্যন্ত নিখুঁতভাবে লোগোর ডিজাইনটা ফুটিয়ে তোলা হয়েছে, যার কারণে লেখাটি এমন দেখাচ্ছে। পরে অবশ্য ওই জুতা বাজার থেকে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়।

আবার একই কাজ করল প্রতিষ্ঠানটি। জুতার সোলে আরবি হরফে ‘আল্লাহ’ লেখায় বিশ্বজুড়ে মুসলিমদের তীব্র সমালোচনা ও নিন্দার মুখে পড়েছে মার্কিন বহুজাতিক কোম্পানি নাইকি।

নাইকির ‘এয়ার ম্যাক্স ২৭০’ ট্রেইনার মডেলের জুতায় লোগো এমনভাবে ব্যবহার করা হয়েছে যা দেখতে আরবি হরফে আল্লাহ শব্দের মতো। শিগগিরই এই জুতা বাজার থেকে প্রত্যাহার করে নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন মুসলিমরা। একই সঙ্গে নাইকির জুতা প্রত্যাখ্যান করারও আহ্বান জানানো হয়েছে।

মুসলিমরা বলছেন, মার্কিন এই বহুজাতিক কোম্পানি জুতার লোগোয় ‘আল্লাহু’ লিখে ইসলামের অবমাননা করেছে। নাইকির জুতায় আল্লাহ লেখা প্রথম দেখতে পান মুসলিম গ্রাহক সাইগা নওরিন নামের এক নারী। পরে তিনি তাৎক্ষণিকভাবে অনলাইনে একটি পিটিশন চালু করেন। এতে বিশ্ব বাজার থেকে নাইকিকে এই জুতা প্রত্যাহার করে নেয়ার আহ্বান জানানো হয়।

তার এই পিটিশনের পর নাইকির বিরুদ্ধে বিশ্বজুড়ে সমালোচনার ঝড় শুরু হয়। ইসলামের প্রতি অসম্মানজনক আচরণ প্রদর্শনের অভিযোগ করেন নওরিন। পিটিশনে তিনি বলেন, নাইকির জুতায় সৃষ্টিকর্তার নাম লেখা অত্যন্ত অপমানজনক এবং ভীতিকর। এটা মুসলিমদের জন্য অসম্মানজনক এবং চরম অবমাননাকর। একই সঙ্গে ইসলামের জন্য অবমাননাকর।

নওরিন লিখেছেন, নাইকির এয়ার ম্যাক্স ২৭০ ট্রেইনার মডেলের জুতায় এমনভাবে লোগো তৈরি করা হয়েছে যা দেখতে আরবি হরফে আল্লাহ শব্দের মতো। এই শব্দ মাটি স্পর্শ করবে, লাথি মারবে এমনকি নোংরা ময়লা আবর্জনাও লাগবে। তিনি বিশ্বের সকল মুসলিমকে ঐ পিটিশনে স্বাক্ষরের আহ্বান জানান।

নওরিনের এই পিটিশনে এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ১২ হাজার মানুষ স্বাক্ষর করেছেন। ১৫ হাজার স্বাক্ষরের টার্গেট নির্ধারণ করেছেন নওরিন। ইসলামের অবমাননাকর এই পণ্য উৎপাদন করায় টুইটারেও অনেকেই নাইকির সমালোচনা করেছেন।

তবে ইচ্ছাকৃতভাবে জুতার সোলে ‘আল্লাহ’ লিখে মুসলিমদের প্রতি অসম্মান প্রদর্শন করা হয়নি বলে দাবি করেছে মার্কিন এই কোম্পানি। জুতায় আল্লাহ লেখার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে নাইকি বলছে, নাইকির এয়ার ম্যাক্সের লোগো এঁকেছেন তারা। এটার সঙ্গে ধর্মীয় কোনো সম্পর্ক নেই বলেও দাবি করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

নাইকির বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, ‘অন্য যে কোন ধারণাকৃত অর্থ কিংবা বর্ণনা অনিচ্ছাকৃত। নাইকি সব ধর্মকে সম্মান করে এবং আমরা এ ধরণের উদ্বেগকে গুরুত্বের সাথে নিই।’

আরও পড়ুন:  আল্লামা শফীর দোয়া নিতে হাটহাজারীতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারে কিছু ভুলত্রুটি ছিল: সিইসি

এ ‘মহাসমুদ্রে’ আমি কাকে ধরবো, কাকে খুঁজবো : দুদক চেয়ারম্যান

সিজার করতে গিয়ে নবজাতককে কেটে ফেললেন চিকিৎসক : আটক ৩

শিশুদের দিয়ে জোরপূর্বক পতিতাবৃত্তি, ভুয়া স্ত্রীসহ পুলিশের এসআই আটক

‘স্যার, আমি জাহালম, সালেক না’ : ৩৩ মামলায় ‘ভুল’ আসামি ৩ বছর ধরে জেলে

ফেসবুকে লাইক দিন