ধ্বংস করা হলো প্রায় ৮ কোটি টাকার মাদকদ্রব্য

ইমান২৪.কম: মাদক চোরাচালান ও মাদক সেবন প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে জনসম্মুখে প্রায় ৮ কোটি টাকা মূল্যের বিপুল পরিমাণ বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য ধ্বংস করেছে বিজিবি।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মহানন্দা নদীর ওপারে বারঘোরিয়ায় বীরশ্রেষ্ঠ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর সেতুর পার্শ্ববর্তী মাঠে চাঁপাইনবাবগঞ্জস্থ বিজিবির ৫৩ ও ৫৯ ব্যাটালিয়ন কর্তৃক আটককৃত এসব মাদকদ্রব্য ধ্বংস করা হয়। ধ্বংসকৃত মাদকদ্রব্যের মধ্যে ছিল ২ হাজার ৫৩৯ বোতল বিদেশি মদ, ৫৪ হাজার ২৩২ বোতল ফেনসিডিল, ২২ কেজি ৩৯০ গ্রাম হেরোইন, ১৪ কেজি ২০০ গ্রাম গাঁজা, ২৭ হাজার ৫০২ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ৩৬৯ পিস নেশা জাতীয় ট্যাবলেট ও ১ হাজার ৬৪৫ পিস নেশা জাতীয় ইনজেকশন।

এ উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য দেন বিজিবির রাজশাহী সেক্টর কমান্ডার কর্নেল মুশফিকুর রহমান মাসুম, জেলা প্রশাসক এজেডএম নূরুল হক, ৫৯ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল সাজ্জাদ সারোয়ার, ৫৩ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল এস এম সালাহ্ উদ্দিন ও পুলিশ সুপার টিএম মোজাহিদুল ইসলাম।

আরো পড়ুন>> বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, স্পষ্টভাবে বলতে চাই, গ্যাসের দাম বাড়ানো যাবে না। বাড়ালে জনগণ তা প্রতিহত করবে। তিনি বলেন, এই সরকার তাদের দুর্নীতিকে ঢেকে রাখার জন্য সব রকম আর্থিক ব্যয় জনগণের ওপর চাপিয়ে দিচ্ছে। গ্যাসের দাম বাড়ানোর কথা চিন্তা করা হচ্ছে। এই গ্যাসের দাম বাড়ানোর ব্যাপারে আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, গ্যাসের দাম বাড়ানো যাবে না। যদি গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়, তাহলে অবশ্যই জনগণ প্রতিহত করবে।

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের মিলনায়তনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ১৩তম কারাবন্দী দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। উত্তরাঞ্চল ছাত্র ফোরাম এবং বাংলাদেশ ছাত্র ফোরাম যৌথভাবে সভার আয়োজন করে। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ফখরুল বলেন, ‘আজকে বাংলাদেশের যে সংকট তা অত্যন্ত গভীর। এই সংকট শুধু মাত্র একটি নির্বাচনে নয়, একটি দলের নয়-এটা সমগ্র জাতির সংকট। ৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের চেতনাকে ধুলিস্যাৎ ও ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে।’ সারাদেশে লাখ লাখ নেতাকর্মী মামলায় জর্জরিত হয়ে গেছে দাবি করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘এর উদ্দেশ্য কী? উদ্দেশ্য একটাই-এই (বিএনপির) রাজনীতি যারা করে, এই রাজনীতির চিন্তা যারা ধারণ করে তাদেরকে নিশ্চিহ্ন করে দিতে হবে। কিন্ত এই রাজনীতি সাধারণ মানুষ করে।

বিএনপির শক্তি কোথায়? বিএনপির শক্তি সাধারণ মানুষের কাছে। আমরা বারবার লক্ষ্য করেছি, বিএনপিকে যত ধ্বংস করে ফেলার চেষ্টা করা হয়, বিএনপি আবার সেই ফিনিক্স পাখির মতো জেগে ওঠে। কারণ এই রাজনীতি মানুষের অন্তরে গেঁথে আছে।’ তারেক রহমানের সাজা ও মামলা সম্পর্কে সাবেক এই প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘তারেক রহমান সম্পর্কে অযথা উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মিথ্যা প্রচারণা চালানো হচ্ছে। অথচ আজ পর্যন্ত তারেক রহমানের বিরুদ্ধে একটি মামলাও তারা প্রমাণ করতে পারেনি।

যে বিচারক তাকে মুক্তি দিয়েছিলেন, তাকে দেশ ছেড়ে চলে যেতে হয়েছে।’ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সহ-সভাপতি নাজমুল হাসানের সঞ্চালনায় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান ইকবাদ হাসান মাহমুদ টুকু, বরকত উল্লাহ বুলু, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব, বিএনপি নেতা মীর হেলাল প্রমুখ।

ফেসবুকে লাইক দিন