দারুল উলূম দেওবন্দে স্মার্টফোন নিষিদ্ধ করা হয়েছে; থাকলেই বহিষ্কার

ইমান২৪.কম: ভারতের ঐতিহ্যবাহী দীনি বিদ্যানিকেতন দারুল উলূম দেওবন্দ মাদরাসা কর্তৃপক্ষ স্মার্টফোন ব্যবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

শুক্রবার দারুল উলূম দেওবন্দের মুহতামিম মুফতি আবুল কাসেম নোমানি স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনাদের ইলমি ও চারিত্রিক উন্নতি সাধনের লক্ষ্যে মাদরাসা কর্তৃপক্ষ স্মার্টফোনের ওপরে সম্পূর্ণরূপে নিষেধাজ্ঞা জারি করছে।

কোনো শিক্ষার্থীর কাছে যদি স্মার্টফোন পাওয়া যায় তাকে দারুল উলূম থেকে বহিষ্কার করা হবে। এ ব্যাপারে কোনরকম অযুহাত গ্রহণ করা হবে না।

দরসগাহ স্মার্টফোনের জন্য নয় উল্লেখ করে মুফতি আবুল কাসেম নোমানি বলেন, ‘শিক্ষার্থীকে স্মার্টফোন বাড়িতে রেখে আসতে হবে।

প্রতিষ্ঠানের ভেতরে কারও কাছে স্মার্টফোন পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে কঠিন বিচার দায়ের করা হবে। কোন ব্যক্তির সুপারিশ আমলে নেওয়া হবে না বলেও জানান তিনি।’

স্মার্টফোনে শিক্ষার অগ্রগতি ক্ষুণ্ন হচ্ছে দাবি করে মুফতি নোমানি বলেন, স্মার্টফোনে পড়ালেখার ক্ষতি হয়। এর দ্বারা শিক্ষার অগ্রগতি বাধাগ্রস্ত হয়।

আরও পড়ুনঃ আলৌকিকভাবে শুধুমাত্র কুরআনের আয়াত দেখতে পান অন্ধ ইয়াসারি!

নামাজেই ২০০০ বার কুরআন খতম!!! -শায়েখ উসামার কুরআনপ্রেম

তুরস্কে এমন একটি বাজার আছে, যেখানে দোয়ার মাধ্যমে শুরু হয় বেচাকেনা

ফেসবুকে লাইক দিন