তিন সিটিতে ফের ভোট চাইলেন চরমোনাই পীর

বরিশাল, রাজশাহী ও সিলেট সিটি করপোরেশনের নির্বাচন বর্জন করেছে চরমোনাই পীরের দল ইসলামী আন্দোলন। দলটির আমির ও চরমোনাই পীর সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম নির্বাচন বর্জন করে পুনরায় তিন সিটিতে নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন।

সোমবার (৩০ জুলাই) বিকেলে পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানিয়ে গণমাধ্যমে একটি বিবৃতি দিয়েছে দলটি।

বিবৃতিতে সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম বলেন, ‘প্রকাশ্যে ভয়াবহ ভোট ডাকাতি, কেন্দ্র দখল, জাল ভোট প্রদান, হাতপাখার এজেন্টদের বের দেওয়া ও ভোটারদেরকে ভোট দিতে না দেওয়াসহ ব্যাপক অনিয়ম হয়েছে। খুলনা ও গাজীপুর সিটি নির্বাচনের চেয়ে তিন সিটি নির্বাচনে জঘন্য ভোট ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।’

চরমোনই পীরের মন্তব্য, ‘প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে পছন্দের প্রার্থীদের নাম ঘোষণা দিলে জনগণের টাকা নষ্ট হতো না। এভাবে নির্বাচনের নামে জাতিকে ধোঁকা দিয়ে দেশের সম্পদ নষ্ট করার অধিকার কারও নেই। তিন সিটিতেই নির্বাচন কর্মকর্তা ও পুলিশ নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করে ভোট ডাকাতির সুযোগ দিয়েছে। বিশেষ করে বরিশালে দলীয় ক্যাডার ও প্রশাসন যেভাবে ভোট ডাকাতির নির্লজ্জতা প্রদর্শন করেছে, তা আগে কখনও দেখা যায়নি। জনগণের ভোটাধিকার রক্ষায় দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার সময় এসেছে।’

এদিকে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব গাজী আতাউর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘খুলনা-গাজীপুরের চেয়েও জঘন্য নির্বাচন হয়েছে। বরিশালে সবচেয়ে বেশি খারাপ অবস্থা ছিল।’

তিনি আরও বলেন, ‘সিলেটে অন্তত ৭০টি কেন্দ্রে অনিয়ম হয়েছে।’ জাল ভোট, জোর করে নৌকা প্রতীকে সিল মারাসহ এজেন্টদের বের করে দেওয়ার অভিযোগ করেন গাজী আতাউর রহমান।

ফেসবুকে লাইক দিন