ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যৌন অভিযোগঃ পর্ন তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলস সহ ছয় নারীর…

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কীর্তিকলাপ নিয়ে সরগরম বিশ্ব সংবাদমাধ্যম। পর্ন তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলস দাবি করেন, ২০০৬ সাল থেকেই ট্রাম্পের সঙ্গে তার যৌন সম্পর্ক ছিল।

পর্ন তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলসের আইনজীবী জানিয়েছেন, একা স্টর্মি নয়, আরও কমপক্ষে ছয়জন নারী আছেন, যাঁরা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যৌন সম্পর্কের অভিযোগ নিয়ে মামলার জন্য তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। এদের মধ্যে দুই জনের সঙ্গে প্রেসিডেন্টের অপ্রকাশ বা নন-ডিসক্লোজার চুক্তি রয়েছে। অর্থ দিয়ে তাঁদেরও মুখ বন্ধ করা হয়েছে।

তিনি এমন অভিযোগও করেছেন, স্টর্মি যাতে মুখ না খোলেন, সে জন্য তাঁর ওপর ট্রাম্পের উকিল রীতিমতো শারীরিক হুমকি দেখিয়েছে।

সিএনএনের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্পের আইনজীবী মাইকেল আভেনাতি বলেন, তাঁদের দাবি কতটা সত্য তা তলিয়ে দেখা হচ্ছে। এই মুহূর্তে এর চেয়ে বেশি কিছু বলতে তিনি রাজি হননি।

স্টর্মি জানান ২০১৬ সালের জুলাইয়ে তিনি ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাথে দেখা করেছেন একটা চ্যারিটি গলফ টুর্নামেন্ট চলার সময়। এটা হচ্ছিলো ক্যালিফোর্নিয়া ও নেভাডার মাঝে একটা রিসোর্ট এলাকায়। এর আগে এক সাক্ষাতকারে তিনি জানান যে মিস্টার ট্রাম্প তাকে ডিনারে নিমন্ত্রণ করেছিলেন এবং তিনি তার হোটেলের রুমে তার সঙ্গে দেখা করেন। সেখানে তাদের মধ্যে যৌন সম্পর্ক হয়েছিলো বলে দাবি করেন স্টর্মি।

যদিও মিস্টার ট্রাম্পের আইনজীবী এটি পুরোপুরি প্রত্যাখ্যান করেছেন। তবে স্টর্মি ড্যানিয়েলসের দাবি যদি সত্যি হয় তাহলে ঘটনাটি ঘটেছিলো ডোনাল্ড ট্রাম্পের কনিষ্ঠ পুত্র ব্যারনের জন্মের মাত্র চার মাসের মধ্যে।

সাক্ষাৎকারের এক পর্যায়ে ড্যানিয়েলসকে জিজ্ঞেস করা হয়, তিনি ট্রাম্পের প্রতি আকৃষ্ট ছিলেন কিনা। ড্যানিয়েলস জবাবে পালটা প্রশ্ন করে বলেন- আপনি কি আকৃষ্ট হতেন? তবে ড্যানিয়েলস বলেছেন, ট্রাম্পকে নিয়ে তিনি এক ঘোরে থাকতেন। তিনি আরও বলেন, ট্রাম্পের সঙ্গে তার প্রথম দিককার আলাপচারিতায় যৌনতা-সম্বন্ধীয় কিছু আসতো না। পেশাদারী বিভিন্ন বিষয় নিয়েই আলাপ হতো। কিন্তু ড্যানিয়েলস আগেই অনুমান করেছিলেন, তাদের এই আলাপচারিতা থেকে তাদের মধ্যে যৌন সম্পর্ক গড়ে উঠতে পারে।

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে চুক্তি ভঙ্গের দায়ে পর্ন তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলস এর কাছে ২ কোটি ডলার বা প্রায় ১৬৬ কোটি ৩৭ লাখ টাকা দাবি করেছে ট্রাম্পের আইনজীবী। ট্রাম্পের আইনজীবী মাইকেল কোহেন বলেন, পর্ন তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলস ২০১৬ সালের নির্বাচনের আগে মুখ না খোলা যে চুক্তি আবদ্ধ হয়েছিলো তা এখন পর্যন্ত বিশ বার লঙ্ঘন করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

পর্ন তারকার মুখ বন্ধ রাখতে যে অর্থের বিনিময়ে চুক্তি হয়েছিলো তার ক্ষতি পূরণ হিসাবে এই টাকা দাবি করেন ট্রাম্পের আইনজীবী মাইকেল কোহেন। প্রেসিডেন্টের আইনজীবী কোহেন বলেন, ট্রাম্পের সাথে পর্ন তারকা স্টর্মির যে অবৈধ সম্পর্ক আছে, সে বিষয়ে পর্ন তারকার মুখ বন্ধ রাখতে ট্রাম্প তাকে ১ লাখ ৩০ হাজার  নিজস্ব ডলার দিয়েছিলেন।

তবে আইন বিশেষজ্ঞদের মতে, এসবই ড্যানিয়েলস ও তাঁর উকিলকে ভীত করার উদ্যেশেই করা হচ্ছে। স্টর্মি ইঙ্গিত করেছেন ট্রাম্পের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে তাঁর কাছে ছবি অথবা ভিডিও প্রমাণ রয়েছে।  ড্যানিয়েলসের উকিল অবশ্য পুরো অপ্রকাশ চুক্তিটি ভিত্তিহীন বলে তা বাতিলের জন্য আদালতের শরণাপন্ন হয়েছেন। অন্যদিকে, ট্রাম্পের উকিল এই মামলা ক্যালিফোর্নিয়ার অঙ্গরাজ্য পর্যায়ের আদালত থেকে সরিয়ে কোনো ফেডারেল আদালতে স্থানান্তরের জন্য আবেদন করেছেন।

ডোনাল্ড ট্রাম্প ও স্টর্মি ড্যানিয়েলস এর মধ্যকার অপৃতিকর ঘটনা বহুদূর এগোলেও অনেকটাই চুপ রিপাবলিকান শিবির। তবে সাউথ ক্যারেলাইনার কংগ্রেসম্যান মার্ক স্যানফোর্ড বলেছেন এটি একটি গভীর সমস্যা। অন্যদিকে ডেমোক্র্যাটদের তরফ থেকে অনেকেই মিস ড্যানিয়েলসকে অর্থ দেয়ার ঘটনাটিকে তদন্ত করার জন্য এফবিআইয়ের প্রতি আহবান জানাচ্ছে।

ফেসবুকে লাইক দিন