ট্রাম্পকে নয়; ইহুদীরা ভোট দিয়েছিল বাইডেনকে

ইমান২৪.কম: আমেরিকার বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘোষিত নীতি ছিল ‘ইসরাইল-বান্ধব’।

তা সত্ত্বেও ইহুদীদের মন জয় করতে পারেনি ট্রাম্প। বিশেষজ্ঞদের মতে ট্রাম্প গত ৪ বছরে ইসরাইল ও ইহুদীদের এতকিছু করেছেন যা আর কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্ট করেননি।

ট্রাম্প একবার বলেছিলেন, আমি ইহুদীদের জন্য যা করেছি তাতে আমি যদি ইসরাইলের ভোটে দাঁড়াই তাহলে নেতানিয়াহুকে হারিয়ে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়ে যাব।

এর পরও বাইডেনকে ভোট দিয়েছে আমেরিকায় বসবাসরত মার্কিন-ইহুদীরা। একটা সমীক্ষক সংস্থা বলেছে ইহুদীদের অন্তত ৭০ শতাংশই বাইডেনকে ভোট দিয়েছে।

এ খবর শুনে মর্মাহত হয়েছেন ট্রাম্প ও ইহুদীবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু দুজনেই। কারণ নেতানিয়াহুর হাত ধরে ট্রাম্প তার ক্ষমতার বাইরে গিয়েও ইসরাইলকে পাইয়ে দিয়েছেন জেরুসালেম থেকে গোলান মালভূমি পর্যন্ত।

তাছাড়াও আরব দেশগুলোর সঙ্গে ইসরাইলকে মিলিয়ে দিয়ে বিতর্কিত চুক্তিও করিয়ে দিয়েছে ট্রাম্প। তবুও ইহুদিদের মন জয় করতে পারেননি তিনি।

উল্লেখ্য, মার্কিন-ইহুদিরা বরাবরই ডেমোক্র্যাট পার্টির অনুগত। তবে এবার তার ব্যতিক্রম হয়েছে। যার অন্যতম কারণ হলো বাইডেনের ভাইস প্রেসিডেন্ট প্রার্থী কমলা হ্যারিসের স্বামী উগ্র ইহুদী।

ফেসবুকে লাইক দিন